Skip to content

বিশ্বের সবথেকে শক্তিশালী ব্যক্তি পুতিনের বিলাসবহুল জীবনযাপন দেখে আপনিও হবেন অবাক

বিশ্বের ধনী ব্যক্তিদের কথা তো আমরা সবাই শুনেছি কিন্তু কখনো কি ভেবে দেখেছেন যে কোনো দেশের প্রেসিডেন্টের নামও এই ধনী ব্যক্তিদের তালিকায় থাকবে। হ্যাঁ, এবং সেই ব্যক্তিত্ব রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ছাড়া আর কেউ নন, যিনি বর্তমানে সবচেয়ে বেশি আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছেন। ভ্লাদিমির পুতিনের (Vladimir Putin) এত সম্পদ যে কারো পক্ষে অনুমান করা সহজ নয়।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন (Vladimir Putin) অত্যন্ত বিলাসবহুল জীবনযাপন করেন এবং তাকে বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী ও প্রভাবশালী নেতা হিসেবে বিবেচনা করা হয়। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন আজ সারা বিশ্বে আলোচনার বিষয়। তার আলোচনায় আসার মূল কারণ ইউক্রেন ও রাশিয়ার বিরোধ, যা এখন যুদ্ধে রূপ নিয়েছে। আসলে, এই শক্তির পিছনেও রয়েছে পুতিনের অগাধ সম্পদ, যা তাকে অন্য দেশের সাথে যুদ্ধে নেমে পড়ার সাহস জোগায়।

Vladimir Putin

পুতিন (Vladimir Putin) এর 69 বছর বয়স এবং একটি ধনী জীবনযাপন করেন। পুতিন তার সম্পদ এবং শখের জন্য শিরোনামে রয়েছেন। খবরে বলা হয়, পুতিন অত্যন্ত বিলাসবহুল জীবনযাপন করেন। পুতিনের অনেক ছবি ইন্টারনেটে ভাইরাল হচ্ছে, যাতে তাকে শিকার, মাছ ধরতে, ঘোড়ায় চড়তে, হেলিকপ্টার এবং মোটরসাইকেল চালাতে দেখা যায়। এটা বিশ্বাস করা হয় যে তিনি পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি হতে পারেন কিন্তু তার সমস্ত সম্পদ রহস্যে আবৃত।

একটি ইংরেজি সংবাদপত্রের মতে, পুতিনের কাছে 9641 বিলিয়ন সোনার মজুদ রয়েছে। শুধু তাই নয়, অনেক বিলাসবহুল গাড়ির সংগ্রহও রয়েছে তার। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পুতিনের ব্যক্তিগত জেট, বিলাসবহুল গাড়ি এবং অনেক প্রাসাদ রয়েছে। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের (Vladimir Putin) কাছে 43টি বিমান, 15টি হেলিকপ্টার, 7000টি গাড়ির পাশাপাশি একটি বিলাসবহুল প্রাইভেট জেট বিমান এবং একটি সোনার টয়লেট রয়েছে বলে জানা গেছে।

Vladimir Putin

রাশিয়ান প্রেসিডেন্টের কাছে বিশ্বের সবচেয়ে দামি ঘড়ির সংগ্রহ রয়েছে, যার মূল্য প্রায় 5 কোটি টাকা বলে জানা গেছে। সমালোচকদের মতে, রাশিয়ান রাষ্ট্রপতি 160 বিলিয়ন পাউন্ডের সম্পদের মালিক। পাবলিক আউটিংয়ের সময় তাকে দামি ডিজাইনার স্যুটে দেখা যায়। পুতিনের সর্বশেষ বাড়িটির আয়তন 1,23,785 বর্গফুট যা বাকিংহাম প্যালেসের প্রায় দ্বিগুণ। পুতিন 1983 সালে প্রাক্তন ফ্লাইট অ্যাটেনডেন্ট লিউডমিলা শক্রেবনেভাকে বিয়ে করেছিলেন।

লিউডমিলা শক্রেবনেভার সাথে তার দুটি কন্যা রয়েছে, যাদের নাম মারিয়া পুতিন এবং ইয়েকাতেরিনা পুতিন। তিনি তার জীবনকে প্রায় পুরোটাই লাইমলাইটের বাইরে রাখার চেষ্টা করেছেন। তিনি 14 বছর বয়স থেকে মার্শাল আর্ট করছেন। পুতিন জুডো চ্যাম্পিয়ন এবং এতে “ব্ল্যাক বেল্ট” বিজয়ীও হয়েছেন। পুতিন শিকার ভ্রমণে যেতে পছন্দ করেন। জুডো, আইস হকি, সাঁতার, মার্শাল আর্ট এবং অন্যান্য কার্যকলাপের মতো খেলা ছাড়াও পুতিন নিজেকে ফিট রাখতে জিম ও করেন। অর্থাৎ দেখতে গেলে পুতিন প্রায় সব রকমের প্রতিভার অধিকারী।