Skip to content

দাড়ি না কাটার আসল কারণ জানিয়ে সবাইকে চমকে দিলেন বাংলার ছেলে অরিজিৎ সিং

    বর্তমান জগতে আমাদের ভারত তথা বিশ্বের সকলের সবথেকে প্রিয় প্লেব্যাক সিঙ্গার হলেন অরিজিৎ সিং (Arijit Singh)। একথা বলা যায় যে, কিশোর কুমার (Kishore Kumar), কে কে (K K) এবং হেমন্ত মুখোপাধ্যায়ের (Hemanta Mukherjee) মতো অতুলনীয় গায়কদের পর তার নাম সহজেই উচ্চারণ করা সম্ভব। টলিউড বলিউড এর মতন ইন্ডাস্ট্রিতে, প্রায় ৮০ শতাংশ সিনেমাতে এবং অ্যালবামে তিনি তার নিজের কন্ঠ দিয়েছেন।  মন খারাপের মরসুমে অথবা সদ্য প্রেমে পড়া সেক্ষেত্রে অরিজিৎ সিং (Arijit Singh) এর মতন গায়ক এর কোন বিকল্প মেলা ভার। সিনেমা যেমনই হোক না কেন তার গানের টানে সিনেমাও অনবদ্য হয়ে ওঠে।

    Arijit Singh

    সদ্যপ্রয়াত ও অতুলনীয় প্লেব্যাক সিঙ্গার কে কে (K K) ওরফে কৃষ্ণকুমার কুন্নাত (KrishnaKumar Kunnath) স্মরণে ইয়ারো দোস্তি গানটি গেয়ে স্টেজ মাতিয়েছেন অরিজিৎ সিং (Arijit Singh)। আসমুদ্রহিমাচল মানুষের আবারো গানটি শুনে কিংবদন্তি কে কে (K K) এর জন্য মনটা কেমন করে উঠলো। দর্শকরা জানেন অরিজিৎ সিং এর গানের পর তার আরও সব থেকে বড় গুণ হলো খ্যাতির শিরোনামে পৌঁছানোর পর তিনি তোমার-আমার সাধারণের মতন মাটির মানুষ।

    এত কোটি টাকার সম্পত্তির মালিক হওয়া সত্ত্বেও তিনি তার নিজের ছেলেকে জিয়াগঞ্জের একটি সাধারণ স্কুলে ভর্তি করিয়েছেন। তিনি জনগণের ভিড়ে কখন হয়তো আপনার পাশ দিয়ে অনায়াসে হেঁটে চলে যাবেন, আপনি তা বুঝতে পারবেন না। কারণ তার মনের মধ্যে কোন প্রকার ফুটেজ নেওয়ার চিহ্ণ কিংবা অহংকার এর লেশমাত্র নেই।

    See also  শুধু সিনেমাতে নয় বাস্তব জীবনেও হিরো আল্লু অর্জুন, অনাথ মেয়ের সমস্ত দায়ভার নিলেন নিজের কাঁধে!

    Arijit Singh

    সর্বদাই তার মুখের মধ্যে হাসি জুড়ে থাকে। অত্যন্ত কঠিন গান কেউ তিনি এই হাসি ও কণ্ঠস্বরের জাদু গেয়ে দর্শকের মন জয় করে নিতে পারেন। তবে তার অসংখ্য ভক্তের প্রশ্ন একটাই তিনি কেন চুল, দাড়ি কাটেন না ? সম্প্রতি কাপিল শর্মা শো এর একটি এমন প্রশ্নই ধুয়ে এসেছে তার দিকে। কাপিল শর্মা প্রশ্ন করেন তাকে শুধুমাত্র ব্যস্ততার কারণে নাকি অন্য কোন কারণে তিনি দাড়ি কাটেন না ?

    কপিলের (Kapil Sharma)  এই প্রশ্নে আরিজিৎ সিং হেসে লুটিয়ে পড়েন।  পরে অরিজিৎ বলেন, এটি আমার একটি অত্যন্ত গোপনীয় কথা।  তবে আজ আমি সবার সামনে তা বলব। আমি জিয়াগঞ্জের একটি ছোট দোকানে দাড়ি কাটি। মুম্বাইয়ে দাড়ি কাটলে অনেক টাকা নেয়। স্বাভাবিকভাবেই তার এই জবাব শুনে সকলে যেমন হেসে ওঠেন তিনি অবাকও হন। সকলের মনে একটাই প্রশ্ন এত বড় একজন প্লেব্যাক সিঙ্গার এর কি টাকার অভাব ? কেন দাড়ি কামানোর জন্য তাকে টাকার হিসাব করতে হয় ?

    Arijit Singh

    এর থেকেই প্রমাণ হয়ে যায় একটা মানুষ ঠিক কতটা down-to-earth হতে পারে। এত বড় একজন মানুষ মাত্র ৫০ টাকার জন্য দাড়ি কাটার অপেক্ষা করেন, এটা ভেবে অবাক লাগে। সত্যিই এই দেশ কতটা বিচিত্র!! সাথে মানুষগুলোও!!