Skip to content

কেন এখনও পর্যন্ত মানুষের সাথে দেখা করেনি এলিয়েনরা? বেরিয়ে এলো চমকপ্রদ তথ্য

  • June 23, 2022

আজকাল এলিয়েন সম্পর্কে নতুন তথ্য বেরিয়ে আসছে। পৃথিবীতে এলিয়েনদের নিয়ে অনেক অদ্ভুত জিনিস দেখা ও শোনা যায়।  বিশ্বজুড়ে বহু মানুষ এলিয়েন (Alien) এবং ইউএফও (UFO) দেখার দাবি করেছে। মহাবিশ্বে কি এলিয়েনদের অস্তিত্ব আছে?  বিজ্ঞানীরা বছরের পর বছর ধরে এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজছেন, কিন্তু এখন পর্যন্ত তারা কোনো সফলতা পাননি।  কিন্তু প্রতিদিনই এলিয়েন (Alien) এবং ইউএফও (UFO) সম্পর্কে নতুন নতুন দাবি করা হচ্ছে।

এখন এরই মধ্যে একটি নতুন তত্ত্ব সামনে এসেছে যেখানে চমকপ্রদ প্রকাশ করা হয়েছে।  এই নতুন তত্ত্ব ব্যাখ্যা করে কেন এখনও এলিয়েন (Alien) এবং মানুষের মধ্যে কোন যোগাযোগ নেই। এখন এই তত্ত্ব সামনে আসার পর সবচেয়ে বড় প্রশ্ন উঠছে এলিয়েনরা কোথায় থাকে? এখন সর্বত্র এই তত্ত্ব নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। আসুন জেনে নেওয়া যাক এই তত্ত্বে কী বলা হয়েছে।

Alien

একজন ইতালীয় পদার্থবিজ্ঞানী এনরিকো ফার্মি (Enriko Farmi) বলেছিলেন যে আগামী এক মিলিয়ন বছরে এলিয়েনরা গ্যালাক্সি জুড়ে ছড়িয়ে পড়বে।  তিনি ১৯৫০ এর দশকে এই ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন।  কিন্তু এখন পর্যন্ত মানুষ ও এলিয়েনদের মধ্যে কখনো দেখা হয়নি।  এখন প্রশ্ন হল, এই এলিয়েনরা কোথায়?  এই ধারণাটি ফার্মি প্যারাডক্স (Farmi Paradox) নামে পরিচিত। এ কারণে বিজ্ঞানী ও বিশেষজ্ঞরা ভাবতে বাধ্য হন কেন মানুষ এখনো এলিয়েনদের সাথে দেখা করতে পারেনি।

এখন দুজন জ্যোতির্বিজ্ঞানী একটি নতুন তত্ত্বের মাধ্যমে এই প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করেছেন।  এই তত্ত্ব অনুসারে, এলিয়েনরা মানুষের চেয়ে বেশি বুদ্ধিমান।  কার্নেগি ইনস্টিটিউশন ফর সায়েন্সের (Karnegi Institution for Science) ডক্টর মাইকেল ওং (Dr. Micle Ong) এবং ক্যালিফোর্নিয়া ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজির (California Institute Of Tegnology) ডক্টর স্টুয়ার্ট বার্টলেট (Dr. Stuyard Bardlet) দ্বারা পরিচালিত গবেষণাটি রয়্যাল সোসাইটিতে প্রকাশিত হয়েছে।

Alien

বিজ্ঞানীরা যুক্তি দেখিয়েছেন যে মানুষের মতো ভিনগ্রহের সভ্যতাও শেষ হয়ে যাচ্ছে।  এই কারণে তিনি অনুসন্ধান করার ক্ষমতা বিকাশের জন্য যথেষ্ট সক্ষম নন।  ইতিহাসে অনেক মানব সভ্যতাও এমন প্রক্রিয়ার সম্মুখীন হয়েছে।

বিজ্ঞানীরা সমীক্ষায় বলেছেন, পৃথিবীর বহু মানব সভ্যতা এক সময় পর সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গেছে।  উদাহরণস্বরূপ, আমরা রোমান সাম্রাজ্য এবং প্রাচীন মিশরের সভ্যতার দিকে তাকাতে পারি।  এমনকি এলিয়েনরাও এমন বিবর্তন এবং ধ্বংস থেকে বেঁচে থাকত না।  ওং এবং বার্টলেট উল্লেখ করেছেন যে যখন একটি সভ্যতা অসীমভাবে বৃদ্ধি পায়, তখন এটি একটি বিশাল জনসংখ্যার জন্ম দেয়।  এ কারণে সীমিত সময়ে সম্পদের সীমাহীন চাহিদা রয়েছে।  এ কারণে একটি সভ্যতার অবসানের ঘটনা ঘটে।

Alien

এই গবেষণায়, সম্ভাবনা উত্থাপিত হয়েছে যে বিদেশী সভ্যতার বিকাশ এবং ধ্বংসের একটি ক্রম থাকবে।  এই কারণেই তারা কেবল এতটাই বিকাশ করে যে তাদের অস্তিত্ব শেষ হতে পারে না।  এর সাথে তিনি বলেছেন, মহাকাশে এলিয়েনরা বিস্তৃত হওয়ার স্বপ্ন দেখে না।  এছাড়াও তিনি তার গ্রহে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করতে চান।  এমন একটি তত্ত্বও রয়েছে যে এলিয়েনদের আমাদের কাছে পৌঁছানোর ক্ষমতা রয়েছে, কিন্তু আমাদের সাক্ষাতের যোগ্য মনে করে না।