আগামী কয়েকদিনে নামতে চলেছে তাপমাত্রার পারদ, রাজ্যে শীত প্রবেশের দিনক্ষণ জানালেন আবহাওয়া দপ্তর

গত কয়েকদিন থেকেই আকাশ মেঘে ঢেকে রয়েছে। মাঝে মাঝে সূর্যের মুখ দেখা গেলেও অধিকাংশ সময়ই কালো মেঘে ঢাকা। এই অবস্থায় আবহাওয়া দপ্তর খুশির খবর দিল। বৃহস্পতিবার থেকেই মেঘমুক্ত হবে রাজ্যের আকাশ। আগামী শুক্রবার থেকে রাজ্যে পড়তে শুরু করবে শীত। রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় যে বৃষ্টিপাত হচ্ছে তাও কমতে শুরু করবে। পশ্চিমী ঝঞ্জা এখন বিহারে অবস্থান করছে। গত পাঁচদিন ধরে কলকাতা যাব রাজ্যের বিভিন্ন জেলাতে মাঝারি থেকে অতিবৃষ্টি হয়ে চলেছে।

এর ফলে রাজ্যের মানুষ নাজেহাল। তবে আবহাওয়া দপ্তর স্বস্তির খবর দিয়েছে। বুধবার থেকেই বৃষ্টি কমতে শুরু করবে মাঝেমধ্যে রোদ উঠবে। তবে বৃহস্পতিবার থেকে আকাশ মেঘ মুক্ত হতে চলেছে। পূবালি হাওয়ার দাপটে বিহারের দিকে সরে যাচ্ছে পশ্চিমী ঝঞ্ঝা যার জেরে বৃহস্পতিবার থেকে আকাশ মেঘ মুক্ত হবে। আর আকাশে মেঘ কাটলেই ধীরে ধীরে রাজ্যে শীতের আমেজ পড়তে শুরু করবে। আবহাওয়া দপ্তরের দেওয়া খবর অনুযায়ী

Weather

আবহাওয়া

শুক্রবার থেকে গোটা রাজ্যে শীতের আমেজ পড়তে চলেছে। শুক্রবার থেকে জম্মু-কাশ্মীর এবং হিমাচল প্রদেশ ও উত্তরাখণ্ডের একাধিক জায়গায় তুষারপাতের পূর্বাভাস রয়েছে এবং এর ফলে পশ্চিমবঙ্গেও হিমেল হাওয়া ঢুকতে শুরু করবে এবং তাপমাত্রার পারদ নিম্নমুখী হবে। পশ্চিমী ঝঞ্ঝার ফলে রাজ্যের বিভিন্ন জেলাগুলিতে যে বৃষ্টিপাত হচ্ছিল তা কমতে শুরু করলেও আগামীকাল উত্তরাখণ্ডে বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। 48 ঘন্টা বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।

তিস্তা,তোর্ষা সহ একাধিক পার্বত্য নদী তে বিপদসীমার উপর দিয়ে জল বইছে।ইতিমধ্যে উত্তরাখণ্ডের বেশ কিছু জায়গায় ধস লক্ষ করা গেছে। নৈনিতাল, কালিম্পং এ যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এখনো পর্যন্ত 34 জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে এবং 9 জন নিখোঁজ। বহু পর্যটক আটকে রয়েছেন। তবে সরকারের তরফ থেকে জোর কদমে উদ্ধারকার্যে চালানো হচ্ছে।