Skip to content

মাত্র ১ টাকায় চা! শিলিগুড়ির এই চা ব্যাবসায়ীর আয়ের কাছে হার মানবে সরকারি চাকরিজীবিও

    img 20230111 175016

    একনিমিষে ক্লান্তি দূর করিয়ে দিতে পারে এমন একটি দুর্দান্ত রোজকার পানীয় হলো চা। ভারতের বেশিরভাগ মানুষরাই চা প্রেমী। বাংলার মানুষ এই চা বিক্রি করাকে নিজের পেশা হিসেবেও নিযুক্ত করেছেন। এই বাংলায় বিভিন্ন স্বাদের, বিভিন্ন ধরনের, বিভিন্ন মূল্যের চা পাওয়া যায়। তবে এই প্রতিবেদনে আপনাকে এমন একজন ব্যক্তির সাথে পরিচয় করাবো জিনিস শিলিগুড়িতে ১ টাকায় চা (One Rs/- Tea) বিক্রি করেন। শুনতে অবাক লাগছে তাই তো ? তবে এই কথা সত্যি। চলুন প্রতিবেদনে আজ এই বিষয়ে বিস্তারিত জেনেনি।

    Cafe

    শিলিগুড়ির এই চা স্টল (Tea Stall in Siliguri) দেওয়া ব্যবসায়ীর নাম অরুণাভ পালচৌধুরী (Arunabha Palchouchury)। এই চা-এর স্টলে আপনি ১ টাকায় চা পেতে পারেন। তবে এখানে শুধু চা নয় তার পাশাপাশি বিরিয়ানি থেকে শুরু করে আরও অনেক মন মাতানো সুস্বাদু খাবার পাওয়া যায়।

    অরুনাভ-এর কথা বলতে গেলে বলা যায়, ২০১৭ সালের একটি মারাত্মক দুর্ঘটনায় তার ডান পা-টা কেটে বাদ চলে যায়। তবে তিনি হেরে যাননি। কৃত্তিম পা লাগিয়ে জীবনযুদ্ধে জয়ী হওয়ার কারণে নিজের অক্লান্ত প্রচেষ্টায় বর্তমানে একটি বিশাল বড় স্টলের মালিক।

    চায়ের দাম ১ টাকা কেন এবং তাতে কি বিশেষত্ব আছে?

    Tea shop

    একটি সাক্ষাৎকারের অরুনাভ জানান, আমি ২০০৪ সালে একটি রাস্তার ধারে শিলিগুড়ি সিটি সেন্টারের কাছে প্রথম দোকান খুলেছিলাম। তখন এখানে কচুরি, গরম রসগোল্লা, পুরি এবং আরও বিভিন্ন ধরনের মুখরোচক খাবার পাওয়া যেত। এরপর আমি একটি ক্যাফে সেন্টার খুলি এবং সেখানের সবচেয়ে বড় বিশেষত্ব হলো ১ টাকায় পাওয়া চা। ক্যাফেটির নাম ‘অরণ্যের দিন রাত্রি’ (Aryaner din ratri)।  ধীরে ধীরে এই আকর্ষণীয় তা গোটা শিলিগুড়ি তথা গোটা ভারতেও ছড়িয়ে পড়ে এবং আমার দোকানে ক্রেতাদের জমায়েত বাড়তে থাকে। ১ টাকা দামের এই চা-এর স্বাদ এক কথায় অতুলনীয়।

    See also  বিরাট কোহলি গড়লেন এমন এক রেকর্ড যা বিশ্বের আর কোন ক্রিকেটার করতে পারেনি!

    এখানেই শেষ নয়, তিনি জানান, ‘বাঙালির সবচেয়ে বড় দুর্গোৎসবেও আমার এই স্টল ব্যাপক চলেছে। এখানে চা বিক্রি পাশাপাশি আমি কফি, মকটেলস, ইলিশ বিরিয়ানিও জমিয়ে বিক্রি করেছি। তাই বলা যায় আমার দোকান উৎসবেও রমরমিয়ে চলে।

    প্রসঙ্গত বলা যায়, প্রতিদিন এই স্টল থেকে অরুনাভ-এর সাড়ে তিন থেকে চার হাজার টাকা বিক্রি হয়। অল্প দামে চা বিক্রি করলেও এখানে গ্রাহকের সংখ্যা কম নয়। এছাড়াও তিনি জানিয়েছেন, শুধু চা নয় বাকি জিনিসও এখানে সমানভাবেই উচ্চ লাভে বিক্রি হয়। ইতিমধ্যেই তার এই চা স্টলটি সোশ্যাল মিডিয়ায় সকলের কাছে মুখ্য আলোচ্য বিষয়।