Skip to content

জার্মানির পর এবার খুব শীঘ্রই ভারতে চলবে হাইড্রোজেন গ্যাস চালিত ট্রেন! বড় ঘোষণা রেলমন্ত্রীর..

    রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব  (Ashwini Vaishnaw) ওড়িশার ভুবনেশ্বরে অবস্থিত SOA ইউনিভার্সিটিতে জানিয়েছেন, দেশে শুরু হতে চলেছে হাইড্রোজেন গ্যাস চালিত ট্রেন। রেলমন্ত্রী ওই দিন আরো জানিয়েছেন,  “Gatishakti Terminals Policy -র সান্নিধ্যে প্রত্যন্ত গ্রাম্য এলাকাগুলিতে পৌঁছে সুবিধা প্রদান করার জন্য ভারতীয় রেলগুলি চেষ্টা করছে। এই গ্যাস চালিত ট্রেন তৈরির কাজ দ্রুত গতিতে চলছে।

    Ashwini Vaishnaw

     

    ওই দিন ঘোষিত সভায় বন্দে ভারত ট্রেনের (Vande Bharat Train) প্রতি প্রশংসাও শোনা গিয়েছিল রেলমন্ত্রীর মুখে। তিনি বলেছেন, ” হাই-স্পিডে চালিত হওয়া এই বন্দে ভারত ট্রেন গুলি অত্যন্ত যত্ন সহকারে দেশীয় প্রযুক্তির মাধ্যমে তৈরি করা হয়েছিল এবং টানা ২ বছর ধরে কোনো বড় ধরনের যান্ত্রিক ত্রুটি ছাড়াই এই বন্দে ভারত ট্রেনগুলি যাত্রীদের পরিষেবা প্রদান করছে।” এছাড়াও রেলমন্ত্রী আশা রাখেন যে আগামী দিনে ICF যে আরও বেশ কয়েকটি বন্দে ভারত ট্রেন তৈরি করছেন সেগু8লিও খুব শীঘ্রই চালু হবে।

    ৭২ টি বন্দে ভারত ট্রেন তৈরি হতে চলেছে 72 (Vande Bharat trains are going to be built)

    Vande Bharat

    রেলমন্ত্রী অশ্বিনী কুমার বৈষ্ণব জানিয়েছেন, একটি বন্দে ভারত ট্রেনের সমস্ত কিছু ঠিকঠাক ভাবে পরীক্ষিত হওয়ার পর এবার মোট ৭২ টি ট্রেনের উৎপাদনের কাজে হাত দেওয়া হয়েছে। এই ট্রেনগুলির প্রতি ঘন্টায় সর্বোচ্চ গতিবেগ হবে ১৮০ কিমি। পরীক্ষা করে দেখা গেছে এই গতিতে ট্রেন চলার সময় এক গ্লাস ভর্তি জল এক বিন্দুও উপচে পড়েনি। বর্তমানে, নতুন দিল্লি থেকে বারাণসী এবং নতুন দিল্লি থেকে বৈষ্ণো দেবী পর্যন্ত মোট দুটো বন্দে ভারত ট্রেন (Vande Bharat Train) চলছে।

    শুধুমাত্র জার্মানিতে চলছে হাইড্রোজেন গ্যাস চালিত ট্রেন (Hydrogen gas powered trains are running only in Germany)

    H2 Train

    যদি সব কিছু বিষয় ঠিকঠাক থাকে তবে, আশা করা যাচ্ছে, আগামী বছর থেকেই ভারতকে গর্বিত করে তুলতে এবং যাত্রীদের সুবিধা প্রদান করতে শুরু হতে চলেছে এই হাইড্রোজেন গ্যাস চালিত ট্রেন। কারণ বর্তমানে শুধু জার্মানিতেই চলছে। চলতি বছরে জার্মানিতেই এই ট্রেনের প্রথম ব্যাচ চালু হয়েছিল। রেলমন্ত্রীর বলেছেন, ” আমরা শুধু এই হাইড্রোজেন ট্রেন চালু হওয়ার ক্ষেত্রে জোর দিচ্ছি না। আমরা ট্র্যাক ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম মারফত কাজ করতে চাই। যাতে সমানভাবে সেমি হাই স্পিড ট্রেনগুলিও চলাচল করতে পারে।”