Skip to content

একসময় এই কারণের জন্য পরিচালকরা ডাস্টবিনে ফেলে দিতেন ছবি, আজ নিজের দমে বলিউডের সফল অভিনেতা

    বলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম অভিনেতা, তিনি আর কেউ নন, মনোজ জোশী (Manoj Joshi)। যিনি বিভিন্ন চরিত্রে তার অভিনয় দক্ষতা প্রমাণ করেছেন বহুবার।  তার ফিল্ম কেরিয়ারের প্রায় ২৪ বছরে, যেখানে তিনি ১২০ টিরও বেশি বলিউড ছবিতে কাজ করেছেন।  তবে বেশির ভাগ কমেডি ও নেতিবাচক চরিত্রেই তিনি দর্শকদের কাছে বেশি স্বনামধন্য হয়েছেন।

    Manoj Joshi

    হিন্দি চলচ্চিত্র জগতের সাথে সম্পর্কিত এমন অনেক তারকা আছেন, যাদের আমরা তাদের আসল নাম দিয়ে নয় বরং তাদের দুর্দান্ত অভিনয়ের কারণে বহুবার চলচ্চিত্রের চরিত্রের নামেই চিনে এসেছে।  আজকের এই প্রতিবেদনে  আমরা বলিউডের এমন একজন অভিনেতার কথা বলতে চলেছি, যিনি বলিউডের অনেক সফল এবং উজ্জ্বল ছবিতে কাজ করেছেন এবং বিশেষ করে তিনি বলিউডের খুব বিখ্যাত একজন কমেডিয়ান। ‘হেরা ফেরি’ চলচ্চিত্রের তার দারুণ অভিনয়ের জন্য তিনি আজও পরিচিত। যেটিতে তিনি কাচরা শেঠের চরিত্র করেছিলেন। কিন্তু, মনোজ যোশীর পক্ষে চলচ্চিত্র জগতে নিজের চিহ্ন তৈরি করা এত সহজ ছিল না এবং একজন অভিনেতা হিসাবে সফল হতে তাকে অনেক চড়াই-উতরাই পেরিয়ে যেতে হয়েছে।

    Manoj Joshi

    বলিউডের মতো জগতে টিকে থাকার জন্য তিনি অনেক ‘আনড়ী’ চরিত্রেও অভিনয় করেছেন।

    এটি অভিনেতা মনোজ যোশী নিজেই একটি সাক্ষাত্কারের সময় উল্লেখ করেছিলেন, যেখানে তিনি বলেছিলেন যে তার প্রয়োজনের কথা বিবেচনা করে, তিনি তার ক্যারিয়ারে অনেক ‘আনড়ী’ এবং ‘বোকা’ চরিত্রে যা করেছেন, তবে তিনি তাতেও খুশি। কারণ এত কিছু পরিশ্রমের পরই  তিনি অত্যন্ত সফল হতে পেরেছেন। মনোজ যোশী সারাদিন স্টুডিওতে নিজের ছবি তুলতেন। মনোজ যোশী প্রায়ই স্টুডিওতে যেতেন, এবং তিনি একটা স্টুডিওতে নয়, সারাদিন বহু স্টুডিওতে নিজের ছবি তুলতেন।  আর অনেকবার দেখার পর মানুষ তাদের ছবি ডাস্টবিনে ফেলে দিত।

    বিষয়টি ২০১৯ সালে মনোজ যোশী নিজেও প্রকাশ করেছিলেন, যেখানে তিনি বলেছিলেন যে অনেক সময় চলচ্চিত্র পরিচালক এবং চলচ্চিত্র নির্মাতারা তার ছবি দেখে তাকে অস্বীকার করতেন। এই কারণে, তিনি একবার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন যে তিনি তার জীবনে আর কখনও পোর্টফোলিও শ্যুট করবেন না।  অন্যদিকে, তিনি যখন একটি চলচ্চিত্রের অডিশন দিতে আসেন, তখন তার পোর্টফোলিও এবং তার কিছু ছবি দেখে চলচ্চিত্র পরিচালক তার সামনে পড়ে থাকা ছবি ডাস্টবিনে ফেলে দেন।  এই ঘটনা দেখে মনোজ যোশীর বিশ্বাস একবারের জন্য নড়ে গেল।

    Manoj Joshi

    অনেক উত্থান-পতন সহ্য করার পর, মনোজ যোশী অবশেষে চলচ্চিত্র জগতে নয়, থিয়েটারে কাজ করার সিদ্ধান্ত নেন, কিন্তু এই সময়ে তার ভাগ্য আবার ঘুরে যায়। সেই দিনগুলিতে মনোজ যোশী একটি নাটকে কাজ করছিলেন, যেখানে পরিচালক জন ম্যাথিউ তাকে দেখেছিলেন এবং তাকে তার চলচ্চিত্র সরফারোশ-এ উপস্থিত হওয়ার সুযোগ দিয়েছিলেন।  এর পর মনোজ যোশি আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।এর পর থেকে মনোজ জোশী গরম মসলা, চুপ চুপ কে, ভুল ভুলাইয়া, বিভা, ভাগম ভাগ এবং হাঙ্গামার মতো উজ্জ্বল বলিউড ছবিতে একের পর এক কাজ করেন।