ক্রমবর্ধমান পেট্রোল-ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি থেকে সাধারণ মানুষকে বাঁচাতে নতুন অভিনব উদ্যোগ কেন্দ্রের, এবার থেকে

Loading...

দিন দিন পেট্রোল-ডিজেলের দাম ঊর্ধ্বমুখী। সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারের মতো এই মূল্য বৃদ্ধির জন্য। ইতিমধ্যে পেট্রোলের দাম 100 পেরিয়ে গেছে এবং ডিজেলের দাম 100 এর কাছাকাছি।পেট্রোল-ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির দৈনন্দিন জীবনে ব্যবহৃত জিনিসপত্রের উপর পড়ছে। এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় সরকার অপ্রচলিত ও পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তির দিকে বিশেষ নজর দিচ্ছে। ভারতে পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তির ব্যবহার গত সাত বছরে 250 শতাংশ বেড়েছে। শুধু এই নয় পরিবর্তন সূচকে বিশ্বের 10 টি দেশের মধ্যে রয়েছে ভারতের নাম।

 

অপ্রচলিত ও পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তির ব্যবহারে মাত্র কয়েক বছরেই বিশ্বের প্রথম 5 টি দেশের মধ্যে ঢুকেছে ভারত। পেট্রোল-ডিজেলের দাম বৃদ্ধি পাওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযুষ বলে জানিয়েছেন পেট্রোলের দাম বৃদ্ধি আয়ত্তে আনার জন্য আরও বেশিসংখ্যক ইথানলের ব্যবহার করতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। বর্তমানে ভারতে এক লিটার পেট্রোলে 8.1% ইথানল মেশানো হয়। তবে আগামী 2023-24 অর্থ বর্ষের মধ্যে 8.1% থেকে বাড়িয়ে 20% শতাংশ করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

Loading...

পেট্রোল

Loading...

পেট্রোল

আগে যদিও 2030 সাল অব্দি ইথানলের বৃদ্ধি বিষয়ক সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছিল তবে বর্তমান পরিস্থিতি জন্য সেই সময়সীমা অনেকটাই কমিয়ে আনা হলো। তবে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযূষ গোয়েল বলেন ভারতকে বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনা করে অপ্রচলিত ও পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তি গুলির উপর বিশেষ জোর দিতে হবে। এছাড়াও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আরো বলেন ভবিষ্যতে এমন প্রযুক্তির বিকাশ করা হবে যাতে 100% ইথানল ব্যবহার করে গাড়ি চালানো যায়। সৌরশক্তি ও ব্যাটারিচালিত গাড়ি তৈরিতে বিশেষ ভাবে প্রযুক্তির উন্নতি করা হচ্ছে।

সৌরশক্তি ও ব্যাটারিচালিত গাড়ি একবার বাজারে নেমে গেলে আগামী দিনে পেট্রোলের ওপর চাপ অনেকটা কমবে বলে জানানো হয়েছে। পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তি ব্যবহারের লক্ষ্যমাত্রা হিসেবে 2022 সালে 175 gigabyte এবং 2030 সাল অব্দি এটি 450 gigabyte পর্যন্ত নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যমাত্রা স্থির করা হয়েছে। আশা করা যায় ভারত অপ্রচলিত ও পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তি ব্যবহারে এক বিশেষ ভিত্তি স্থাপন করবে।

Loading...

Loading...