Skip to content

কোচের পদ থেকে বাদ পড়ার পরেই নিজেই স্বীকার করলেন ভারতের অন্তত দু’টো আইসিসি ট্রফি জেতা উচিত ছিল

    সম্প্রতি ভারতীয় ক্রিকেট দলের হেড কোচ পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন রবি শাস্ত্রী (Ravi Shastri)। নিজের কোচিং জীবনে একটিও আইসিসি ট্রফি (ICC Trophy) জিততে না পারাকে ব্যর্থতা বলে মেনে নিয়েছেন তিনি। তিনি জানিয়েছেন, ৫ বছরে অন্তত দুটি আইসিসি (ICC) ট্রফি জিততে পারতো ভারতীয় ক্রিকেট দল। এই ক্রিকেট দলটিতে ICC ট্রফি জেতার মত সব রসদ ছিল।

    Ravi Shastri

    ভারতীয় ক্রিকেট দল শেষবার ICC ট্রফি জিতেছিল ২০১৩ সালে রবি শাস্ত্রির (Ravi Shastri) কোচের দায়িত্ব নেওয়ার আগে। রবি শাস্ত্রির কোচিং জীবনে দ্বিপাক্ষিক সিরিজে ভারতীয় দল দারুণ সাফল্য লাভ করলেও আইসিসি ট্রফিতে ভারতের রেকর্ড যথেষ্ট হতাশাজনক। রবি শাস্ত্রির কোচিংয়ে বিগত ৬ বছরে কোনো আইসিসি ট্রফি নেই। আন্তর্জাতিক সাফল্য বলতে শুধুমাত্র ২০১৮ সালে রোহিত শর্মার নেতৃত্বে এশিয়া কাপ জেতা। অথচ দায়িত্ব নেওয়ার আগে তিনি ভারতকে বিশ্বকাপ জেতানোর অঙ্গীকার করেছিলেন।

    Ravi Shastri

    ২০১৪ সালে টিম ইন্ডিয়ার হেড কোচ হওয়ার ঠিক আগে রবি শাস্ত্রী (Ravi Shastri) জানিয়েছিলেন, “আগামী দুটি বিশ্বকাপের মধ্যে অন্তত একটিতে ভারত চ্যাম্পিয়ন হবে”। এরপর ভারতীয় ক্রিকেটে অনেক কিছু বদলে গেছে। রবি শাস্ত্রী হেড কোচ হওয়ার পরে আবার ইস্তফাও দিয়ে দিয়েছেন। কিন্তু এতদিন পর্যন্ত ভারত একটিও আইসিসি ট্রফি জিততে পারেনি। নিজের এই ব্যর্থতা সম্পর্কে ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন কোচ রবি শাস্ত্রী জানিয়েছেন, “না, কোনও আক্ষেপ করছি না। তবে এটা হতাশাজনক। আমরা সব ফরম্যাটে এত ভাল খেলেছি। আমি জানি এই দলটির অন্তত ২টি আইসিসি ট্রফি জেতার ক্ষমতা ছিল।”

    See also  শাহরুখ থেকে শুরু করে দীপিকা, জন, 'পাঠান' সিনেমার অভিনেতা অভিনেত্রীদের শিক্ষাগত যোগ্যতা কতদূর? জেনে নিন

     

    এই বিষয়ে জানিয়ে রাখি, ভারতীয় দলের কোচিং ছাড়ার সময়ই শাস্ত্রী দাবি করেছিলেন যে, “যেদিন ভারতের কোচ হয়েছিলাম আমার লক্ষ্য স্থির ছিল যে, ভারতীয় দলকে সমস্ত ক্ষেত্রে সাফল্য পেতে সাহায্য করবো। ভাগ্যবশত আমি সেটা করতেও পেরেছি। বহু প্রতিকূলতার মধ্যেও নিখুঁত ক্রিকেট উপহার এনে দিয়েছে আমার দল। যে কোনো ফরম্যাটে দলের ছেলেরা দিনের শেষে জয় ছিনিয়ে নিয়ে এসেছে। আমি মানছি যে, এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আমরা ব্যর্থ হয়েছি। তবুও আমি পরিষ্কার জানাচ্ছি, এই দল বিশ্বক্রিকেটের ইতিহাসে সর্বকালের অন্যতম সেরা।”