Skip to content

Prepaid Meter: কেন্দ্র সরকারের নতুন নিয়ম! বিদ্যুৎক্ষেত্রে আসতে চলেছে প্রি-পেইড স্মার্ট মিটার

    বিদ্যুৎ মন্ত্রী বর্তমানে এক বিশেষ সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে। দেশের বিভিন্ন সরকারি মন্ত্রকে বিদ্যুৎ বিল বাকি থেকে যাচ্ছে এবং সেই বকেয়া বিদ্যুৎ বিলের হিসাব মেটাতে যথেষ্ট সমস্যার মুখে পড়তে হচ্ছে বিদ্যুৎ মন্ত্রক কে। মূলত এই সমস্যার সমাধান করতেই গোটা দেশজুড়ে প্রিপেড স্মার্ট মিটার (prepaid smart meter) বোঝাতে চলেছে বিদ্যুৎ মন্ত্রক। এই স্মার্ট মিটার একবার বসে গেলে বিদ্যুৎ সংক্রান্ত এই সমস্যার সম্পূর্ণ সমাধান মিলবে বলে মনে করছে বিদ্যুৎ মন্ত্রক।

    কিভাবে কাজ করবে এই প্রিপেড স্মার্ট মিটার?

    এই প্রিপেড স্মার্ট মিটার টি প্রিপেড মোবাইল এর মত কাজ করবে। অর্থাৎ আপনি যেরকম বিদ্যুৎ খরচ করবেন সেই রকম টাকা চার্জ হবে। টাকা দেওয়া বন্ধ হয়ে গেলে বিদ্যুৎ ও বন্ধ হয়ে যাবে। সম্পূর্ণ রিচার্জ পদ্ধতিতে এই মিটার কাজ করবে। বর্তমানে সমগ্র দেশে এই প্রিপেড স্মার্ট মিটার বসানোর বিদ্যুৎ মন্ত্রকের প্রধান লক্ষ্য রয়েছে।

    prepaid smart meter

    সমস্ত সরকারি দপ্তরে এই প্রিপেড স্মার্ট মিটার (prepaid smart meter) বসানো বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। শুধু এই নয় প্রিপেইড বিদ্যুৎ মিটার এর জন্য আগে থেকে টাকা দিয়েই তবে নেওয়া যাবে। দেশের বিদ্যুৎ ক্ষেত্রে আর্থিক স্থিতি আনার জন্যই এই নতুন পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে সরকারের তরফ থেকে। এই পরিষেবা রাজ্যগুলির জন্য একটি মডেল হিসেবে কাজ করবে।

    prepaid smart meter

    এই স্কিমের আওতায় পর্যায়ক্রমিকভাবে কৃষি ভোক্তাদের বাদ দিয়ে সকল বিদ্যুৎ গ্রাহকদের জন্য এই মিটার বসানোর ব্যবস্থা করা হবে। প্রিপেড স্মার্ট মিটার বসানোর অগ্রাধিকার হিসেবে নগর ও গ্রামীণ স্থানীয় সংস্থা, সরকারি বোর্ড এবং কর্পোরেশন সহ কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকারের সব বিভাগ দেরকে দেওয়া হবে। এর সাহায্যে নিশ্চিত করা হবে সরকার বিভাগ গুলি এর জন্য যাতে একটি সঠিক আর্থিক বাজেট বজায় রাখে। বকেয়া বিদ্যুৎ বিলের হিসাব এবং সঠিক সময়ে বিল মিটিয়ে দেওয়া সচল রাখতে এই পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।