এই পদ্ধতিতে PPF এ টাকা জমা করলে হয়ে যাবেন ১.৫ কোটি টাকার মালিক, জানুন বিস্তারিত

Loading...

পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড (PPF) বিনিয়োগের জন্য একটি জনপ্রিয় বিকল্প, যেখানে আপনি ভাল রিটার্ন পাবেন। এতে করও(tax) সাশ্রয় হয়। কিন্তু, এত জনপ্রিয় হওয়া সত্ত্বেও, অনেক সময় মানুষ এর পুরো সুবিধা নিতে পারছেন না। এইরকম পরিস্থিতিতে, যদি আপনি জানতে পারেন যে PPF এর সুদ কিভাবে গণনা করা হয় এবং কিভাবে আপনি সর্বোচ্চ সুদ পেতে পারেন, তাহলে আপনার বিনিয়োগ করা টাকা বহুগুণ বৃদ্ধি পেতে পারে। আজ থেকে প্রায় দেড় বছর আগে, 30 মার্চ 2020 সালে সরকার ক্ষুদ্র সঞ্চয় প্রকল্পের সুদের হার ব্যাপকভাবে হ্রাস করেছিল। PPF এর সুদের হারও 7.1%।

আপনার জানা প্রয়োজন এই যে ছোট সঞ্চয় স্কিম এবং PPF এর সুদ প্রতি ত্রৈমাসিকে পর্যালোচনা করা হয়। এই সুদের হার মুদ্রাস্ফীতির হারের উপর বড় প্রভাব ফেলে। আপনি বছরে একটি পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড (PPF) অ্যাকাউন্টে সর্বাধিক 1.50 লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করতে পারেন। ধরুন, আপনি একটি PPF অ্যাকাউন্টে প্রতি মাসে 12,500 টাকা বিনিয়োগ করেন। 15 বছরে ম্যাচিউরিটি হওয়ার পরে, আপনি 5-5 বছরের ব্লকে আপনার PPF অ্যাকাউন্ট প্রসারিত করতে পারেন। এমন পরিস্থিতিতে, 30 বছর পরে, আপনার PPF অ্যাকাউন্টের পুরো টাকা 1.5 কোটি (1,54,50,911) এর বেশি হয়ে যাবে। এতে আপনার বিনিয়োগ হবে 45 লক্ষ এবং সুদের আয় হবে প্রায় 1.09 কোটি টাকা।

Loading...

Public provident fund

Loading...

আপনি যত তাড়াতাড়ি এই সরকারী প্রকল্পে বিনিয়োগ শুরু করবেন, ততই লাভবান হবেন। ধরুন আপনার বয়স 25 বছর এবং আপনি PPF -এ বার্ষিক 1.5 লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করেন, তারপর 55 বছর বয়সে, অর্থাৎ অবসরের প্রায় 5 বছর আগে, আপনি কোটিপতি হতে পারেন।

পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড একাউন্টে প্রতি মাসে সুদ গণনা করা হয়, কিন্তু এটি আর্থিক বছরের শেষে অ্যাকাউন্টে জমা হয়। অর্থাৎ, প্রতি মাসে আপনি যা সুদ উপার্জন করেন তা 31 মার্চ আপনার PPF অ্যাকাউন্টে জমা করে দেওয়া হয়। তবে PPF অ্যাকাউন্টে কখন টাকা জমা দিতে হবে তার কোন নির্দিষ্ট তারিখ নেই। আপনি PPF-এ মাসিক, ত্রৈমাসিক, অর্ধ -বার্ষিক এবং বার্ষিক অর্থ জমা করতে পারেন।

কিভাবে PPF এ সর্বাধিক পরিমাণ সুদ পাবেন?

আসুন এখন জেনে নেওয়া যাক কিভাবে সুদ গণনা করা হয়। পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ডে সুদ হিসাব করা হয় প্রতি মাসের 1 থেকে 5 তারিখ পর্যন্ত অ্যাকাউন্টের থাকা টাকার পরিমাণের উপর। অর্থাৎ, যদি আপনি কোন মাসের 5 তারিখ পর্যন্ত PPF অ্যাকাউন্টে টাকা রাখেন, তাহলে সেই মাসে সেই অর্থের উপর সুদ পাওয়া যাবে, কিন্তু যদি আপনি 5 তারিখের পর অর্থাৎ 6 তারিখে টাকা জমা করেন, তাহলে সেই সুদ জমা করা টাকা আগামী মাসে পাওয়া যাবে।

Loading...

আসুন একটি সহজ উদাহরণ দিয়ে এই PPF গণনাটি বুঝে নেওয়া যাক। যার মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন কিভাবে সঠিক সময়ে টাকা বিনিয়োগ করে আপনি আরো বেশি সুদ পেতে পারেন।

Loading...

PPF

• Example 1

ধরুন আপনি 5 এপ্রিল আপনার অ্যাকাউন্টে 50,000 টাকা জমা দিয়েছেন, 31 শে মার্চের মধ্যে আপনার অ্যাকাউন্টে ইতিমধ্যেই 10 লক্ষ টাকা আছে। 5 এপ্রিল থেকে 30 এপ্রিল পর্যন্ত, আপনার PPF অ্যাকাউন্টে মোট টাকার পরিমাণ ছিল 10,50,000 টাকা, যা সর্বনিম্ন ব্যালেন্স। সুতরাং 7.1% হারে এর উপর মাসিক সুদ হল – (7.1%/12 X 1050000) = 6212 টাকা।

• Example 2

এখন ধরুন আপনি 5 এপ্রিল পর্যন্ত 50000 টাকা জমা করেননি এবং তারপর 6 এপ্রিল জমা করেছেন। 5 এপ্রিল থেকে 30 এপ্রিল পর্যন্ত, আপনার অ্যাকাউন্টে সর্বনিম্ন ব্যালেন্স হবে 10 লক্ষ টাকা। 7.1% হারে এর উপর মাসিক সুদ হবে
(7.1%/12 X 10,00,000) = 5917 টাকা।

বিষয়টি ভালো করে বুঝুন, বিনিয়োগের পরিমাণ মাত্র 50,000, কিন্তু আপনার জমা করার পদ্ধতির উপর আপনার সুদের পরিমাণ নির্ভর করছে। এমন পরিস্থিতিতে, যদি আপনি PPF -এ আপনার টাকার উপর সর্বোচ্চ সুদ চান, তাহলে এই কৌশলটি মাথায় রাখুন এবং মাসের 5 তারিখের মধ্যে টাকা জমা দিন যাতে আপনি অবশ্যই সেই মাসের জন্য সুদ পাবেন। বিশেষজ্ঞরাও সুপারিশ করেন যে PPF -এ 1.5 লক্ষ বিনিয়োগ কর(tax) ছাড় পাওয়া যায়, তাই আপনি যদি এই কর ছাড় নিতে চান, তাহলে নতুন অর্থ বছর শুরু হওয়ার সাথে সাথে 1 এপ্রিল থেকে 5 এপ্রিলের মধ্যে 1.5 লাখের সম্পূর্ণ পরিমাণ জমা দিন। যদি আপনি এটি করতে সক্ষম না হন, তাহলে প্রতি মাসের ৫ তারিখের মধ্যে টাকা জমা করুন।