Skip to content

এই ৫টি প্রধান কারণ যার জন্য একের পর এক বলিউড সিনেমা হচ্ছে ফ্লপ, কিন্তু সাউথ এর সিনেমা সুপারহিট!

    img 20230114 181004

    ২০২২ সালে বলিউডে অনেক ছবিই মুক্তি পেয়েছে। তবে বর্তমানে বলিউডের অবস্থা এত শোচনীয় যে নামিদামি তারকাদের ছোট বড় বাজেটের অ্যাকশন, থ্রিলার, কমেডি থেকে রোমান্স এই সমস্ত সিনেমাগুলি বাজারে মুখ থুবড়ে পড়েছিল। গোটা ২০২২ সাল ধরে বলিউডে কেবল মাত্র হাতে গোনা ৫ টি সিনেমাই বক্স অফিসে সফল হয়েছিল। এই চলচ্চিত্র গুলি হল – দৃশ্যম ২, দ্য কাশ্মীর ফাইলস, ভুলভুলাইয়া ২, কেজিএফ ২ (হিন্দি), কান্তারা (হিন্দি)। এছাড়াও আরো বেশ কিছু ছবি আছে যেগুলি বক্স অফিসে মোটামুটি সাফল্যতা পেয়েছে। বাকি প্রায় ৩৯ টি বলিউড ছবিই ফ্লপ হয়েছে (Bollywood Flop Movies 2022)।

    Bollywood film

    এছাড়াও ব্রহ্মাস্ত্র, গঙ্গুবাই কাঠিয়াওয়াড়ি এই
    দুটি সিনেমাও হিট করেছিল ২০২২ তে। তবে লাল সিং চাড্ডা, সার্কাস থেকে শুরু করে বচ্চন পান্ডে, রাধে শ্যাম, সম্রাট পৃথ্বীরাজ, রক্ষা বন্ধন, জার্সি, রানওয়ে ৩৪, হিরোপান্তি ২, বিক্রম বেদা এই সব সিনেমাগুলোই বক্স অফিসে চূড়ান্তভাবে ফ্লপ হয়েছে। তবে কি কারণে বলিউডের এই শোচনীয় অবস্থা? বরং বলিউডের বিপরীতে একের পর এক দক্ষিণী সিনেমাগুলি স্প্যান ইন্ডিয়া ব্লকবাস্টার হিট হচ্ছে।

    Raksha Bandhan

    বলিউডের এমন খারাপ অবস্থা নিয়ে অনেকেই হয়তো মনে করে এর জন্য মহামারী দায়ী। তবে একথা সম্পূর্ণই ভুল। বলিউডের পরিস্থিতি বর্তমানে এতটাই খারাপ যে বলিউডে কোন ছবি মুক্তি পাওয়ার পূর্বেই সেই ছবিকে বয়কট করা হোক, এমন ডাক দিচ্ছে সকলে। এর কারণ হিসেবে বলা যায় দর্শকদের মনে বলিউডের অনেক তারকাদের দিয়েই বেশ ক্ষোভ জন্মেছে। অবশেষে এই বিষয়টি নিয়েই সকলের কাছে প্রকাশ্যে মুখ খুললেন বিশেষজ্ঞরা। হঠাৎ করে বলিউডের মতো একটি শক্তিশালী শিল্প জগতের কেন এত শোচনীয় অবস্থা সেই নিয়েই পুঙ্খানুপুঙ্খ আলোচনা করেছেন ট্র্রেড এনালিস্ট করণ তৌরনি।

    See also  কোরিয়ান ব্র্যান্ড BTS-কে ছাড়িয়ে বিশ্বে এই রেকর্ড করলেন বাংলার গর্ব তথা সুরের রাজা অরিজিৎ সিং!

    Gangubai kathiawadi

    বিশেষজ্ঞ করণের মতামত অনুযায়ী, “২০২২ সালে যে ছবিগুলি মুক্তি পেয়েছে সেগুলি খুব বেশি বক্স অফিসে হিট করতে পারেনি। এই মহামারীর পূর্বে হিন্দি সিনেমার মোট কালেকশন ছিল ৪০০০ কোটি টাকা এবং সেটাই ২০২২ সালে মহামারীর পর কমে গিয়ে ৩০০০ থেকে ৩২০০ কোটি টাকার মতো। যদি ওই ক্ষেত্রে অনেকটাই রিকভার করেছে বলিউড।”

    Kashmir Files RRR

    এছাড়াও তিনি জানিয়েছেন, ” বর্তমানে বলিউড সিনেমার যোগান অনেকটাই কমে গেছে। এই পিরোজা ২০০ কোটি টাকার মধ্যে শুধুমাত্র ৮০০ কোটি টাকা এসেছে আঞ্চলিক সিনেমাগুলি থেকে। যেমন- ‘আরআরআর’, ‘কেজিএফ ২’- এগুলি। কিন্তু এগুলো বাদ দিলে মাত্র ৬০% বলিউড সিনেমা নিজস্ব থেকে এসেছে।” এছাড়াও সেই সঙ্গে তিনি বলেছেন, “দর্শকরা বর্তমানে বলিউডের কনটেন্ট একদমই পছন্দ করছে না।” কারণের এই কথায় সহমত দিয়েছেন বিশেষজ্ঞ তরণ আদর্শ।

    Brahmastra

    তরণ আদর্শের মতে, ” বলিউড জগতে ২০২২ সালটা সবথেকে খারাপ গিয়েছে। দর্শকরা একটাও কোন ঠিক পছন্দ করেননি। বোঝাই যাচ্ছে মহামারীর পর দর্শকদের সিনেমা পছন্দের প্রতি একটা আমল পরিবর্তন দেখা গেছে। তারা নিজেরাই এখন পছন্দ করে নিচ্ছেন কোন সিনেমাটি হলে গিয়ে দেখবেন এবং কোনটি দেখবেন বাড়িতে বসে ওটিটি প্ল্যাটফর্মে।”