গাড়ি ও মোটরসাইকেল চালানোর ক্ষেত্রে এল নয়া নিয়ম, এবার থেকে

Loading...

আপনি কি মোটর গাড়ি চালক? যেকোন জায়গায় যেতে কি আপনার মোটরগাড়ি ই সম্বল? তাহলে আপনাদের জন্য রয়েছে একটি বিশেষ খবর। মোটরগাড়ি হোক অথবা চার চাকার গাড়ি এক্ষেত্রে বিশেষ নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে পরিবহন দপ্তর এর তরফ থেকে। আসুন বিষয়টি বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

আমরা রাস্তাঘাটে প্রায়ই দেখতে পাই মোটরসাইকেল অথবা চার চাকার গাড়িতে বিভিন্ন রং যেমন লাল,নীল, সবুজ আলো লাগানো থাকে। এতে হয়তো গাড়ির সৌন্দর্য বৃদ্ধি পায় কিন্তু অন্যদিকে এটি একটি সমস্যার কারণ ও বটে। অনেক মটরগাড়ি চালক ই তাদের হ্যান্ডেল হেডলাইটের জায়গায় বিভিন্ন রংয়ের আলো লাগিয়ে থাকে। আর এই প্রয়োজনের অতিরিক্ত আলো লাগানোর ফলে রাস্তাঘাটে বেড়ে চলেছে দুর্ঘটনা। কারণ এই চোখ ধাধানো আলো অপর প্রান্ত থেকে আসা চালক এর সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে। এবং এর ফলে ঘটে যাচ্ছে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা।

Loading...

গাড়ি

Loading...

গাড়ি

মোটর গাড়িতে হ্যান্ডেল হেডলাইটের পাশে এমন ভাবে এই সব আলোগুলি লাগানো হচ্ছে এতে রাত্রে বেলায় অপর প্রান্ত থেকে আসা চালকের বুঝতে অসুবিধা হচ্ছে যে ওটি দু চাকার বাইক নাকি চার চাকার গাড়ি। এর ফলে চালক বিভ্রান্ত হয়ে পড়ে এবং দুর্ঘটনার শিকার হয়। তাই এবার প্রশাসন ও চার চাকার গাড়িতে এই সমস্ত অহেতুক ফ্লাড লাইটের মত জোরালো এলইডি লাইট লাগানোর উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। যদিও এই নিষেধাজ্ঞা আগেও লাগানো হয়েছিল।

গাড়ি

Loading...

নিষেধাজ্ঞা অনেকদিন আগে জারি হয়েছে তবু গাড়ি চালকরা এই নিয়ম মানতে নারাজ। তারা এই ব্যাপারটি অত্যন্ত হালকা ভাবে নিয়েছে। তাই এবার প্রশাসন নড়েচড়ে বসেছে। ট্রাফিক পুলিশ যথেষ্ট কড়াভাবে বিষয়টিকে দেখছে। ট্রাফিক পুলিশ এই সমস্ত লাইট লাগানো বাইক অথবা গাড়ি গুলিকে দাঁড় করিয়ে সেই সমস্ত লাইট খুলে তবেই ছাড়ছে। এছাড়াও যে সমস্ত শোরুম ও গ্যারেজ গুলিতে এই লাইট গুলি লাগানো হচ্ছে সে বিষয়েও পুলিশ পর্যবেক্ষণ করছে। লালবাজার থানার পুলিশ এ বিষয়ে জানায় যে তারা বিষয়টি কে করা হবে পর্যবেক্ষণ করছে ও পদক্ষেপ নিচ্ছে। কলকাতা ট্রাফিক পুলিশ এর বিষয়ে যথেষ্ট সজাগ।

Loading...