Skip to content

IPL 2022 এ ভাগ নিতে পারবেন না শ্রেয়াস, হার্দিক সহ একাধিক তারকা ক্রিকেটাররা

    ভারতে ক্রিকেট কতটা জনপ্রিয় তা বলে বোঝাতে হবে না। তারপর আবার যখন থেকে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ অর্থাৎ IPL শুরু হয়েছে তখন থেকে ক্রিকেট দেখার প্রতি আগ্রহ বহুগুণ বেড়ে গেছে। আর কিছুদিনের মধ্যে শুরু হতে চলেছে আইপিএল(IPL)। তবে এই আইপিএলের সমস্যার সম্মুখীন হতে চলেছে বড় বড় ক্রিকেট তারকা। সেই সব ক্রিকেটাররা হলেন শ্রেয়াস আইয়ার (Shreyas Iyer) ও হার্দিক পান্ডিয়ার(Hardik Pandya) মত প্লেয়াররা।

    David Warner

    এই অসুবিধা সৃষ্টি হচ্ছে আহমেদাবাদের দলের জন্য। কেন অসুবিধা? আসলে, আহমেদাবাদ টিমের জন্য টেন্ডার পেয়েছিল CVC ক্যাপিটাল। কিন্তু এখনও অবধি BCCI এর পক্ষ থেকে Letter of Intent পেশ করা হয়নি। আর এই চিঠির জন্যই আগত আইপিএলের প্রস্তুতি স্থগিত রয়েছে। আগত 2022 সালের আইপিএলে দুটি নতুন দল যুক্ত হতে চলেছে সেই দুটি দল হল লখনউ (Lucknow) এবং আহমেদাবাদ (Ahmedabad)।

    এই দুটি দলকে মেগা নিলামের আগে 25 ডিসেম্বর পর্যন্ত তাদের 3 জন খেলোয়াড়ের তালিকা হস্তান্তর করতে হয়েছিল। এছাড়াও জানুয়ারি মাসের শুরুতে Mega Auction হবে বলে আশা করা যাচ্ছে। কিন্তু Letter of Intent এর কারণে সে তারিখ পরিবর্তন করে 30 শে ডিসেম্বর করা হয়েছে। তবে তারিখ আরো বাড়ানো হতে পারে অন্যদিকে জানুয়ারি মাসের শেষ সপ্তাহ নাগাদ Mega Auction হতে পারে।

    BCCI দুটি নতুন দলকেই অনুমোদন দিয়ে দিয়েছে। যে কোন খেলোয়ার কে এই দুটি দলে অন্তর্ভুক্তির জন্য চুক্তি এর কথা বলা হতে পারে।তবে এর বাইরে খেলোয়াড় লিখিত চুক্তি বা আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিতে পারে না। মিডিয়া থেকে পাওয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, আমেদাবাদ দল বর্তমানে সব প্লেয়ারদের সাথে কথাবার্তা করছে। শ্রেয়াস আইয়ার(Shreyas Iyer), হার্দিক পান্ডিয়া (Hardik Pandiya), ডেভিড ওয়ার্নার (David Warner), কুইন্টন ডি কক (Quinton De Kock), ক্রুণাল পান্ডিয়ার (Krunal Pandya) সঙ্গে আহমেদাবাদের দল প্রায় চূড়ান্ত কথা বলেছে বলেও দাবি করা হচ্ছে এই মিডিয়ার রিপোর্টে।

    See also  টাইম ট্রাভেলার: পৃথিবীতে শীঘ্রই আসছে দুর্যোগ! এই ভবিষ্যদ্বাণীগুলো বাবা ভাঙ্গা-নস্ট্রাডামাসের চেয়েও ভয়ঙ্কর

    যে তিন জন প্লেয়ার চুক্তিবদ্ধ হবেন তার মধ্যে হার্দিক পান্ডিয়া ও শ্রেয়াস আইয়ার ও রয়েছেন। শ্রেয়াস আইয়ার কে এই দলের অধিনায়কত্ব (captaincy) দেওয়া হবে বলে মনে করা হচ্ছে। কিন্তু প্রধান সমস্যা ঘুরে ফিরে সেই একই জায়গায় দাঁড়াচ্ছে সেটি হল Letter of Intent পেশ করা নিয়ে। যদি আমেদাবাদ দলকে ঠিক সময়ে Letter of Intent না দেওয়া হয় তাহলে দলের ও খেলোয়াড়দের সমস্ত পরিকল্পনা ভেস্তে যাবে।

    Quinton de Kock

    শুধু তাই নয় এই দল আইপিএলে সংযুক্ত হতে ও পারবে না। CVC Capital এর বিনিয়োগ একটি বিদেশি কোম্পানির সাথে যুক্ত যা একটি বেটিং(বাজি) কোম্পানি। কিন্তু ভারতে বেটিং এর উপর প্রতিবন্ধ রয়েছে। এখন সময়ের অপেক্ষা দেখা যাক এই দল কিভাবে এই সমস্যা থেকে বেরিয়ে আসে।