SBI ব্যাঙ্কের KYC আপডেটের নামে উধাও হয়ে যাচ্ছে লক্ষ লক্ষ গ্রাহকের কষ্টের টাকা

Loading...

State Bank of India (SBI) ব্যাংকের নামে একটি ফ্রড মেসেজ ডুকছে গ্রাহকদের মোবাইলে। সেই মেসেজে KYC সংক্রান্ত তথ্য আপডেট করতে বলছে এবং তার সাথে একটা লিংক থাকছে। সেই লিঙ্কে আপনি ভুলবশত ক্লিক করে ফেললেই আপনার স্টেট ব্যাংকের একাউন্টে যত টাকা আছে এক নিমেষে হওয়া হয়ে যেতে পারে। তাই এই লিংক ক্লিক করা থেকে সতর্ক থাকুন। এই প্রতারণা করা হচ্ছে চীন থেকে। দিল্লির cyber peace foundation এবং autobot infosec রিপোর্টে এমনই এক প্রতিবেদন চোখে পড়েছে।

কিভাবে দেশের বৃহত্তম রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক (SBI) এর গ্রাহকদের চিনা হ্যাকাররা নিশানা করছে এই প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। প্রতিবেদন অনুযায়ী জানা যাচ্ছে গ্রাহকদের ফোনে ‘update your KYC’ মেসেজ ও তার সাথে একটি লিংক এ টাচ করে পাঠানো হচ্ছে। কোনো কারণবশত সেই লিঙ্কে গ্রাহক ক্লিক করলে গ্রাহকদের একটি নতুন পেজ খুলে যাবে। সেই পেজে ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড এর মত পার্সোনাল তথ্য জানতে চাওয়া হয়। এছাড়াও ক্যাপচা কোড দিতে বলা হয়।

Loading...

SBI

Loading...

সবশেষে একটি OTP গ্রাহকের রেজিস্টার মোবাইল নাম্বারে প্রেরণ করে ভেরিফিকেশন প্রক্রিয়া করার পর গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট নম্বর জন্মতারিখ ইত্যাদি তথ্য জানতে চাওয়া হয়। এবং সবশেষে একটি ফাইনাল OTP দিতে বলা হয়। এই প্রক্রিয়াটি হয়ে হয়ে গেলেই গ্রাহকের অ্যাকাউন্টে এর পুরো টাকা গায়েব করে দিচ্ছে হ্যাকাররা।এছাড়াও হ্যাকাররা আরো এক রকম ভাবে গ্রাহকদের প্রতারণার ফাঁদে ফেলছে। SBI গ্রাহকদের 50 লাখ টাকা পুরস্কার দেওয়ার দাবি করছে হ্যাকার গ্রুপ। সেখানেও একই রকমভাবে লিংক প্রদান করা হচ্ছে।

 

SBI

গ্রাহকরা এই ফাঁদে একবার পড়লেই তাদের জীবনের সমস্ত সঞ্চয় এক মুহূর্তে উধাও হয়ে যেতে পারে। স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া এর তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে, ব্যাংক কখনোই এই রকম পুরস্কারের কথা উল্লেখ করে গ্রাহকদের মেসেজ পাঠাই না। এছাড়া জানানো হয় third-party ডোমেন এর মাধ্যমে এই হ্যাকিং প্রক্রিয়া চালানো হচ্ছে। একই কায়দায় পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক, কোটাক সহ একাধিক ব্যাংক এর গ্রাহকদের একাউন্ট লুট করা হচ্ছে। তাই ব্যাংকের তরফ থেকে গ্রাহকের উদ্দেশ্যে সতর্ক থাকার কথা বলা হয়েছে।

Loading...

Loading...