Skip to content

মা বলেছিলেন এই কাজ করো না, লোকে কি বলবে! আজ এই দুর্দান্ত আইডিয়া জেরে দাঁড় করিয়েছেন 700 কোটি টাকার কম্পানি

    কোনো মানুষ কিছু করতে চাইলে, কোনো কিছুই অসম্ভব নয়। আমাদের ভারতে, যেখানে এমনকি মহিলাদের অন্তর্বাস(Under Garments) নিয়ে কথা বলা বড় লজ্জার বিষয় বলে মনে করা হয়। কোন মেয়ে এই বিক্রি করার কথা ভাবলে সেই মেয়ের এই ভাবনাকে স্যালুট।

    Richa Kar

     রিচা করের সাফল্যের গল্প

    আজ ভারতের মতো দেশে মহিলাদের জন্য দোকান থেকে অন্তর্বাস কেনা খুবই কঠিন। বিশেষ করে দোকানদার যখন একজন পুরুষ। কিন্তু খুব কম পুরুষ এমন আছেন যারা নারীর এই সমস্যা বুঝতে পারেন। তিনিও এমন একজন ব্যক্তি যিনি কাউকে পাত্তা না দিয়ে, অন্য লোকেরা কী ভাববে তা না ভেবে, এমন পদক্ষেপ নিয়েছেন। যার কারণে তিনি আজ 700 কোটির বেশি একটি কোম্পানি তৈরি করতে সক্ষম হয়েছেন। কারো কথা না ভেবে এবং তার কঠোর পরিশ্রম এবং নিষ্ঠা দিয়ে তিনি একটি অন্তর্বাস ব্র্যান্ড কোম্পানি তৈরি করেছেন। আজ আমরা জিভামে লিঙ্গেরি ব্র্যান্ডের সিইও এবং প্রতিষ্ঠাতা, রিচা কর(Richa Kar) এর কথা বলছি।

    Richa Kar

     রিচা কর এর শিক্ষা ও পারিবারিক পটভূমি…

    রিচা কর ঝাড়খণ্ডের জামশেদপুর শহরে 17 জুলাই 1980 তারিখে জন্মগ্রহণ করেন। রিচা করের মা একজন গৃহবধূ ছিলেন এবং বাবা টাটা স্টিল কোম্পানিতে কাজ করেন। রিচা তার স্কুলে পড়া শেষ করার পর, বিড়লা ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি অ্যান্ড সায়েন্স, পিলানি থেকে তার স্নাতক সম্পন্ন করেছেন।

    Richa Kar

    • রিচার কঠিন যাত্রা।

    শুরুতে নিজের ঘরেই অনেক বিরোধিতার মুখে পড়তে হয়েছিল রিচা করকে। রিচা করের মা তার মেয়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, আমাদের সব পরিচিতদের আমরা কী বলব যে আমাদের মেয়ে ব্রা-প্যান্টি বিক্রি করে। প্রাথমিক পর্যায়ে, এই ব্যবসার জন্য জায়গা খুঁজে পেতেও অনেক সমস্যায় পড়তেন রিচা কর। যখনই রিচা কর বাড়ি ভাড়া নিতে যেতেন, তখনই বাড়িওয়ালা রিচা করকে তার ব্যবসা সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করতেন। তাই ওই সময় রিচা শুধু বলতেন যে সে অনলাইনে কাপড় বিক্রি করে। এ কথা বলার পরই তিনি জায়গা পেয়েছেন।

    See also  বাংলাদেশের এই ৯ জন অভিনেত্রীর সৌন্দর্যের কাছে পাত্তা পাবে না বলিউডের তাবড় তাবড় অভিনেত্রীরাও!

    Richa Kar

    • কিভাবে রিচা সফলতা পেলেন?

    রিচা কলেজে তার ব্যাচমেট কেদার গোবিন্দের সাথে ডেটিং করছিলেন এবং তারপরে রিচা তাকে বিয়ে করেছিলেন। আর রিচা করের স্বামী প্রথম থেকেই রিচাকে সমর্থন করেছিলেন। রিচা ই-কমার্স কোম্পানিকে এমনভাবে ডিজাইন করেছিলেন যাতে তাদের পণ্য গ্রাহকের কাছে খুব সহজে পৌঁছাতে পারে। এবং সমস্ত মহিলার সঠিক ফিটিং বেছে নেওয়ার সহজ এবং সঠিক সুযোগ পাওয়া উচিত এটি মাথায় রেখেছিলেন।

    Richa Kar

    2015-16 সালেও রিচা করের কোম্পানিকে প্রায় 54 কোটি টাকা লোকসানের মুখে পড়তে হয়েছিল। কিন্তু তারপরও রিচা কর হাল ছাড়েননি এবং আজ জিভামে(Jivame) 5000 টিরও বেশি রেঞ্জ, 1000 টিরও বেশি সাইজ এবং 50 টিরও বেশি ব্র্যান্ড অন্তর্ভুক্ত করেছে। প্রতি মাসে প্রায় 2.5 মিলিয়ন ইউনিক ভিজিটর রিচা কর এর ওয়েবসাইট ভিজিট করে। ওয়েবসাইটে প্রতি 1 মিনিটে তাদের অন্তর্বাসও প্রচুর বিক্রি হয়।

    আমরা আপনাকে জানিয়ে রাখি যে আজ অনেক বড় বিনিয়োগকারীও এই কোম্পানিতে বিনিয়োগ করেছেন। Jivame আজকের সময়ে এমন একটি কোম্পানিতে পরিণত হয়েছে, যেটি অনেক নারীকে ভালো মানের পণ্যের পাশাপাশি খুব ভালো সুবিধা প্রদান করছে।