কাল থেকে মিলবে মাত্র 5 টাকায় ডিম-ভাত, শুরু হচ্ছে মমতার “মায়ের রান্নাঘর”

কিছুদিন আগেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যে বাজেট পেশ করেন। তার কিছুদিন পরই মুখ্যমন্ত্রী ‘মায়ের রান্নাঘর’ এর সূচনা করেন। এই ‘মায়ের রান্নাঘর’ প্রকল্পে পাওয়া যাবে মাত্র 5 টাকায় ডিম ভাতের থালি। সাথে 200 গ্রাম চালের ভাত , ডাল ও সবজি। এই খাবারের যোগান দেবে পুরসভা। আপাতত এখন কলকাতায় ১৬ টি বরোতে এই খাবার এর জোগান দেবে পুরসভা।

 

 

ধীরে ধীরে কলকাতার আরো 144 টি ওয়ার্ডে মায়ের রান্নাঘর চালু হবে। পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম জানান এই প্রথম সরকারি উদ্যোগে গরিবদের জন্য মাত্র 5 টাকায় পেট ভরে আমিষ খাবার দিচ্ছে সরকার।

আগামী সোমবার বিকেল তিনটার সময় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভার্চুয়াল ভাবে কলকাতা ১৬ টি বরোতেই এই পরিষেবার শুভসূচনা করবেন। এবং মঙ্গলবার অর্থাৎ প্রকল্প এর সূচনা পরের দিন থেকে প্রতিদিন দুপুর একটা থেকে দুটো পর্যন্ত খাবার বন্টন করা হবে।

 

 

গরিব পরিবারের বাচ্চারা যাতে সামান্য খাবারের জন্য পড়াশোনায় অবহেলা না হয় সেজন্য স্কুলগুলিতে মিড ডে মিল এর সূচনা করেন রাজ্য সরকার। মিড ডে মিল এর ফলে অনেক গরিব পরিবারের বাচ্চারা অনাহার থেকে মুক্তি পায় এবং পড়াশোনাও ভালোভাবে করতে পারে। করোনা মহামারীর সময় স্কুল যেহেতু বন্ধ ছিল সেই জন্য মিড ডে মিলের খাদ্য সামগ্রী অর্থাৎ চাল, ডাল, আলু পড়ুয়াদের বাড়িতে প্রতিমাসে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করেন।

 

এবারও রাজ্য সরকার এই মায়ের রান্নাঘর পরিষেবার সূচনা করে অনেক গরিব পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন। এর ফলে মাত্র 5 টাকায় রাজ্য সরকার খাবার সরবরাহ করবে। নবান্ন সূত্রে খবর ভোটের আগেই সুপরিকল্পিতভাবে পরিষেবার সূচনা হবে।

 

মায়ের রান্নাঘর

 

মায়ের গান নগর পরিষেবার দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রশাসক হলেন দেবাশীষ কুমার। তিনি জানান যে মরশুমে যে রকম সবজি পাওয়া যাবে খাবারের থলিতে সেই রকম সবজি পাওয়া যাবে। অবশ্য বছর দুয়েক আগে দেবাশীষ কুমার দক্ষিণ কলকাতার 85 নম্বর ওয়ার্ডে মাত্র 6 টাকায় দুপুরে নিরামিষ খাবারের থালি বণ্টনের কাজ শুরু করেছিলেন। কিন্তু তিনি জানান মুখ্যমন্ত্রী মাত্র 5 টাকায় গরিব মানুষদের জন্য পেট ভর্তি আমিষ খাবারের আয়োজন করেছেন। অর্থাৎ 5 টাকায় পাওয়া যাবে ডিম ভাত।