নিজের অজান্তে ডেকে আনছেন মারাত্মক বিপদ! ভুলেও রাতে বালিশের পাশে Mobile রেখে ঘুমাবেন না নইলে

বর্তমান জীবনে আট থেকে আশি প্রায় সকলেরই মোবাইল (Mobile) ছাড়া আর দিন চলে না। সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর থেকে শুরু করে রাত্রে ঘুমাতে যাওয়ার আগে পর্যন্ত মোবাইল যেন এক অত্যাবশ্যক দ্রব্যের জায়গা দখল করেছে। কিন্তু এই মোবাইল ফোন ই আপনার শরীরের কি মারাত্মক ক্ষতি করছে আপনার কি জানা আছে? আপনি কি রাত্রে মাথার কাছে মোবাইল রেখে ঘুমাতে যান। এর ফলে কি পরিমান ক্ষতি হচ্ছে আপনারা কি জানেন?

সম্প্রতি আমেরিকার ইনস্টিটিউট অফ এনবিসি ডিফেন্স গবেষকরা গবেষণায় দেখিয়েছেন এই মোবাইল সবচেয়ে বেশি আপনার শরীরের ক্ষতি করে রাত্রে বেলায়, যদি আপনি এটি মাথার কাছে নিয়ে ঘুমোন। এমনকি এটি প্রাণঘাতী ও পর্যন্ত হতে পারে।

Mobile

গবেষকরা জানিয়েছেন , বর্তমানের বেশীরভাগ মোবাইল ফোনে ব্যবহৃত হয় লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি। এবং এই লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি থেকে বিভিন্ন ক্ষতিকর রশ্মি ও গ্যাস নির্গত হয়। শরীরের পক্ষে অত্যন্ত ক্ষতিকর। লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারির মধ্যে রয়েছে কার্বন-মনোক্সাইডের মত বিষাক্ত গ্যাস। যা অতি মাত্রায় শরীরে প্রবেশ করলে মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে।

দিনের অন্যান্য সময়ে মোবাইল থেকে নির্গত গ্যাস প্রাণঘাতী নয়। কিন্তু রাত্রে বেলায় যদি আপনি দরজা-জানালা বন্ধ করে মোবাইল মাথার কাছে নিয়ে ঘুমান তাহলে এটি প্রাণঘাতী পর্যন্ত হতে পারে। তাই আপনাকে এই অভ্যাস দূর করা অত্যন্ত জরুরি। এছাড়াও অনেকেই মোবাইল চার্জ দিয়ে ঘুমানোর অভ্যাস আছে। এটি একটি খুবই খারাপ অভ্যাস। যদি আপনি মোবাইলটি অন্য ঘরের চার্জ দিয়ে থাকেন এবং ঘুমোন অন্য ঘরে তাহলে ঠিক আছে। কিন্তু একই ঘরে মোবাইল চার্জ ও ঘুমোনো যদি হয় তাহলে তো অত্যন্ত মারাত্মক ফল হতে পারে।


যদি একান্তই রাত্রে বেলায় মোবাইল নিজের কাছে রাখার প্রয়োজন হয় তাহলে রুম এর অন্তত একটি জানলা খোলা রাখুন।

অন্যদিকে গবেষকরা আরো জানিয়েছেন যে কম দামি মোবাইল ফোন অথবা ট্যাবলেট থেকে ক্ষতিকর গ্যাস নির্গমনের এর পরিমাণ সবচেয়ে বেশি। এগুলো থেকে শরীরে ক্ষতির পরিমাণ আরো বেশি হয়।চোখ মুখ নাক এ জ্বালা সম্বন্ধিত নানা ধরনের সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে। নিম্ন মূল্যে মোবাইল ফোনে যে সমস্ত ব্যাটারি ব্যবহার করা হয় সে গুলি থেকে খুবই ক্ষতিকর গ্যাস নির্গত হয়।

বলাবাহুল্য বর্তমান জীবন থেকে মোবাইল কে বাদ দিয়ে এক কথায় অসম্ভব। কিন্তু নিজের শরীর কেউ বাঁচাতে হবে। তাই একমাত্র সচেতনতা অবলম্বন করা ছাড়া আর কোনো উপায় নেই। অতএব বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ডিভাইস মোবাইল ট্যাবলেট গুলি রাত্রে ঘুমানোর সময় অন্তত দূরে রাখুন।