পাকিস্তানের টোটাল বাজেটের থেকে ভারতের সেনা বাজেট প্রায় দ্বিগুণ

ভারতের সাথে পাকিস্তানের তুলনা করা এক কথায় অসম্ভব। পাকিস্তান ভারতের নখের যোগ্য নয়। পাকিস্তানকে ভিখারি দেশ বললেও ভুল হবে না। তবুও আমাদের দেশে কিছু পাকিস্তান প্রেমী মানুষ রয়েছেন যাদের জন্য পাকিস্তান লাভ ওঠাই। প্রসঙ্গত ভারতের থেকে এসব পাকিস্তান প্রেমিকদের মানুষ বলা চলে না।

ভারতের

পাকিস্তান ভারতের থেকে সবকিছুতে হাজার গুন পিছিয়ে রয়েছে।সোমবার ভারতের অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন বাজেট পেশ করলেন তাতে বোঝা গেল ভারতের শক্তি কতটা। সে অংশে পাকিস্তান ভারতের নখেরও যোগ্য নয়। এ বছরের বাজেট আমাদের ভারতবর্ষের বিভিন্ন খাতে কত টাকা করে অর্থ বরাদ্দ করা হলো সমস্ত বিবরণ দেয়া হয়েছে এবং এককথায় শক্তি প্রদর্শন করা হয়েছে।

এই বাজেটে দেশের সুরক্ষা খাতে অর্থাৎ 2021-2022 সাল এর জন্য 67 বিলিয়ন ডলার অর্থাৎ ভারতীয় মূল্য হিসেবে 4 লক্ষ 78 হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে।
অন্যদিকে পাকিস্তান তাদের প্রতিরক্ষা ,শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতে সব মিলিয়ে মোট 44 বিলিয়ন ডলার বরাদ্দ করেছে। যা ভারতের শুধুমাত্র প্রতিরক্ষা খাতে বরাদ্দ অর্থের থেকেও কম। সারাবছর ইমরান খান অন্য দেশের কাছ থেকে ধার নিয়ে তার পাকিস্তানকে চালান।

এখন ব্যাপার হচ্ছে যে পাকিস্তানের বিষয়ে ভারতের সময় নষ্ট না করাই ভালো। এখন আসা যাক চীনের বিষয়ে। সম্প্রতি ভারত চীনের সীমান্ত প্রদেশের উত্তেজনার পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছিল। এই জন্য বিশেষ করে ভারত প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে বেশি টাকা বরাদ্দ করেছে। কারণ আমাদের দেশে অর্থাৎ ভারত বর্ষ সুরক্ষার সাথে আপোস করে না।সুরক্ষা খাতে অধিক টাকা বরাদ্দ করার ফলে আমাদের দেশ ফাইটার জেট, রকেট ,সাবমেরিন, মিসাইল ইত্যাদি অত্যাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করে দেশবাসীকে সুরক্ষিত করতে পারবে।
এই বাজেটে শুধুমাত্র সুরক্ষা খাতেই নয় স্বাস্থ্য খাতে এক বিরাট পরিমাণ অর্থ বরাদ্দ করা হয়েছে।অর্থাৎ আমাদের দেশ দেশবাসীর সুরক্ষা ও স্বাস্থ্যের সাথে কোনদিন আপোষ করেনি।