মহামারী সাথে যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে ভারত, তৈরি হচ্ছে মোবাইল হাসপাতাল

Loading...

ভারত তথা বিশ্ব করোনা মহামারি থেকে চরম শিক্ষা নিয়েছে। আমাদের দেশ ভারত এই মহামারী মোকাবিলার জন্য নানা পদক্ষেপ নিয়েছে এবং সফল হয়েছে। খবরে দেখেছি করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য ভারত রেলের কোচ কে আইসোলেশন সেন্টার পরিণত করেছিল।

Loading...

এবার ভারত আরেকটি নতুন সিদ্ধান্ত নিয়েছে।এবার শিপিং কন্টেনের ভিতরে তৈরি হবে দুটি মোবাইল হাসপাতাল  জেটিতে প্রয়োজনে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় নিয়ে যাওয়া যেতে পারে। স্বাস্থ্য দপ্তরের এক অধিকর্তা জানিয়েছেন এই প্রোজেক্টের সম্পূর্ণ খরচ বহন করবে প্রধানমন্ত্রী আত্মনির্ভর স্বচ্ছ ভারত যোজনা।

Loading...

এ দুটি মোবাইল হাসপাতাল দিল্লি এবং চেন্নাই এ রাখা হবে বলে জানা যাচ্ছে।
এই মোবাইল হাসপাতালটি চিকিৎসা যাবতীয় সরঞ্জাম প্যারামেডিকেল স্টাফদের কাজে লাগবে। এই প্রজেক্ট এর ব্যয় ভার রাজ্যকে উঠাতে হবে না। সমস্ত খরচা কেন্দ্রের।

15th finance commission report অনুযায়ী ভারতবর্ষে 18 লক্ষ 99 হাজার 228 টি হসপিটাল বেড রয়েছে বর্তমানে। যার মধ্যে আমরা দেখি 60 শতাংশের বেশি প্রাইভেট সেক্টরের অধীনে।
পরিসংখ্যান অনুযায়ী প্রতি 1000 মানুষ এর পেছনে 1.4 টি করে বেড রয়েছে । যা অন্যান্য দেশের তুলনায় এদেশে সংখ্যা অনেক কম।

মহামারী

Loading...

অন্যান্য দেশের সাথে তুলনা করলে আমরা দেখি যেখানে থাইল্যান্ড, ব্রাজিল এ প্রতি 1000 জন মানুষের পেছনে দুটি করে বেড রয়েছে, শ্রীলংকা ,আমেরিকা ,ব্রিটেনে প্রতি 1000 জনের পেছনে তিনটি করে বেড রয়েছে। এবং চীনের প্রতি 1000 জন মানুষের পেছনে 4 টি করে বেড রয়েছে।

Loading...

ভারতের অনেক রাজ্যে বেড সংখ্যা খুবই কম। করোনাকালে আমাদের দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থার প্রকৃত রূপ আমরা দেখেছি। তাই ভবিষ্যতে যাতে অন্যান্য মহামারীতে আমাদের দেশ স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে পিছিয়ে না যায় সেই জন্য ভারত সরকারের তরফ থেকেই নতুন মোবাইল হাসপাতাল তৈরি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে এই প্রকল্প বাস্তবায়িত করার জোর কদমে কাজ চলছে।