পুরনো ২ টাকার এই কয়েনটি থাকলে এখন আপনিও হতে পারেন ৫ লক্ষ টাকার মালিক, বিস্তারিত জানতে

Loading...

কথাতেই আছে ওল্ড ইজ গোল্ড, পুরনো জিনিসের মূল্য অনেক বেশি। আপনার কাছে যদি পুরনো কোন কয়েন বা টাকা থেকে থাকে তাহলে আপনি কয়েক লক্ষ টাকা পর্যন্ত আয় করে নিতে পারেন। বর্তমান বাজারে পুরনো টাকা ও কয়েন এর যথেষ্ট চাহিদা রয়েছে। এইসব পুরনো কয়েন যদি আপনার কাছে থাকে তাহলে আপনি রাতারাতি লাখপতি হয়ে যাবেন। আসুন বিস্তারিত বিষয়টি জেনে নেওয়া যাক। বিভিন্ন সময়ে ভারতে বিভিন্ন নোট ও কয়েন চালু হয়েছিল যে গুলির বেশিরভাগই বর্তমানে বন্ধ হয়ে গিয়েছে।

এই রকমই দু’টাকার কয়েন চালু ছিল অনেক বছর আগে। দুই টাকার ওই কয়েন আপনার কাছে যদি থাকে তাহলে সেটিকে আপনি অনলাইনে বিক্রি করে কয়েক লক্ষ টাকা কামিয়ে নিতে পারেন। এখন জেনে নেওয়া যাক কোন দু’টাকার কয়েন এর কথা বলা হচ্ছে যেটি বিক্রি করলে লাখপতি হওয়া যায়। 1994 সালে বিশেষ ধরনের একটি দুই টাকার কয়েন চালু হয়েছিল। সেই কমেন্ট এর পেছনে ভারতের পতাকা আঁকা আছে। এই কয়েন টির অনলাইনে মূল্য রাখা হয়েছে 5 লক্ষ টাকা।

Loading...

পুরনো কয়েন

Loading...

 

২ টাকার পুরনো কয়েন

এছাড়াও স্বাধীনতার আগে একটি দুই টাকার কয়েন চালু ছিল যেটিতে ভিক্টোরিয়ার ছবি প্রিন্ট করা আছে সেই কমেন্টের বাজারমূল্য উঠেছে 2 লক্ষ টাকা। এবং 1918 সালের জর্জ কিং এম্পেরোর এর ছবি প্রিন্ট করা একটি কয়েন এর মূল্য 9 লক্ষ টাকা উঠেছে।অর্থাৎ আপনার কাছে যদি এই কয়েনগুলি থাকে সেগুলিকে অনলাইনে বিক্রি করে লাখপতি হয়ে যাবেন। প্রথম প্রশ্ন হচ্ছে আপনার কাছে যদি ওই কয়েন গুলির মধ্যে যেকোনো একটি কয়েন থেকে থাকে তাহলে কোন ওয়েবসাইটে গিয়ে আপনি এইগুলিকে বিক্রি করবেন।

ব্যাপারটি খুবই সহজ। পুরানো জিনিস কেনাবেচার সংক্রান্ত ওয়েবসাইট Quikr এ খুব সহজেই আপনি কয়েনগুলি বিক্রি করে দিতে পারেন। Quikr এই আপনি অনেক ক্রেতা পেয়ে যাবেন। সেখানে আপনার পছন্দসই একটি মূল্য নির্ধারণ করে বিক্রি করে দিতে পারেন। সেই জন্য আপনাকে Quikr অ্যাকাউন্ট তৈরি করে সেখানে যে কয়েনটি আপনি বিক্রি করতে চান সেটির একটি ফটো আপলোড করে দিন। তারপর কোনো ক্রেতা সেটিকে কিনতে চাইলে আপনার সাথে যোগাযোগ করবে এবং খুব সহজে সেটিকে আপনি বিক্রি করে দিতে পারেন।

Loading...

Loading...