সাবধান! রেশন কার্ডে এই তথ্যগুলি ভুল থাকলে হতে পারে ৫ বছরের জন্য জেল

Loading...

বর্তমানে প্রায় সকল রাজ্যবাসীর কাছেই রেশন কার্ড (Ration card) আছে। এই রেশন কার্ড এর দরুন রাজ্যবাসী প্রতি মাসে রেশন সামগ্রী পেয়ে থাকে। রেশন কার্ড সংক্রান্ত বিশেষ কিছু নিয়ম আপনার জেনে রাখা জরুরি। এই নিয়ম এর অপব্যবহার করলে হতে পারে পাঁচ বছর পর্যন্ত জেল ও জরিমানা। বিষয়টি বিস্তারিত জেনে নিন।

ভারতের সাধারণত তিন ধরনের রেশন কার্ড (Ration Card) চালু আছে। যারা দরিদ্র সীমার নিচে বসবাস করেন তাদের জন্য BPL রেশন কার্ড। দরিদ্র সীমার উপরে বসবাসকারী মানুষদের জন্য APL রেশন কার্ড এবং দরিদ্র পরিবারের পাশে দাঁড়াতে অন্তদয় রেশন কার্ড সরকার জারি করেছে। সাধারনত BPL রেশন কার্ড হোল্ডাররা এবং অন্তদয় রেশন কার্ড হোল্ডাররা বেশি পরিমাণে রেশন সামগ্রী পেয়ে থাকে। এবং এই কার্ডের সুযোগ সুবিধা ও বেশি। অনেক ক্ষেত্রে দেখা গেছে এই বেশি সুযোগ সুবিধা পাওয়ার লোভে অনেক মানুষ যার নথিপত্র জমা দিয়ে এই রেশন কার্ড পাওয়ার জন্য আবেদন করে থাকে, এবং জাল রেশন কার্ড তৈরি করে। তাছাড়া অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় তারা সে সমস্ত সুযোগ সুবিধা লাভও করে থাকে। এই বেআইনি কাজের ধরা পড়লেন জেল ও জরিমানা উভয়ই হতে পারে।

Loading...

Ration card

Loading...

আবার অন্যদিকে দেখা যায় পরিবারের কোন সদস্যের মৃত্যু হয়ে গেলেও সেই পরিবার মৃত ব্যক্তির কার্ড সারেন্ডার করেন না। সেই মৃত ব্যক্তির হয়ে বছরের পর বছর রেশন সামগ্রী সংগ্রহ করে চলে সেই পরিবার। এটিও একটি আইনত অপরাধ। অন্যদিকে অনেক ব্যক্তি খাদ্য দপ্তর এর কর্মচারী ও আধিকারিক দিকে ঘুষ দিয়ে এই সমস্ত কাজগুলি করিয়ে নিয়ে সুবিধা ভোগ করে। এক্ষেত্রে ঘুষ দেওয়া ব্যক্তি ও ঘুষ নেওয়া ব্যক্তি উভয় এর ই পাঁচ বছর পর্যন্ত জেল ও তার সাথে জরিমানা হতে পারে।