Skip to content

মেনে চলুন এই 6টি ঘরোয়া পদ্ধতি, সারারাত AC চালিয়েও বিল আসবে 50 শতাংশ কম

দিন দিন তাপমাত্রা বেড়েই চলেছে। ভ্যাপসা গরমে মানুষ নাজেহাল। তাপমাত্রার পারদ প্রায় 35°C থেকে 39°C এর মধ্যে ঘোরাফেরা করছে। আর এই তাপমাত্রা তে সিলিং ফ্যান এর হাওয়া কেমন আসে তা সকলেরই জানা। তাই এখন বেশিরভাগ বাড়িতেই প্রধান ভরসা AC। একদিকে AC চালালে স্বস্তিতে থাকা যায় কিন্তু মাসের শেষে যা বিল আসে তা দেখে চক্ষু চড়কগাছ হয়ে যাওয়ার মত অবস্থা।

সেই প্রসঙ্গে আজ আমরা আপনাদের এমন কয়েকটি পদ্ধতি সম্পর্কে জানাবো যে পদ্ধতি গুলি মেনে চললে AC চালালেও বিদ্যুতের বিল নিয়ন্ত্রিত থাকবে। আসুন সেই পদ্ধতিগুলি জেনে নেওয়া যাক।

Ac

1• ঘরের দরজা-জানালা সঠিকভাবে বন্ধ করা।

যে রুমে AC চলবে সেই রুমে দরজা ও জানালা পুরোপুরি ভালোভাবে বন্ধ আছে কিনা সেদিকে নজর রাখুন। কারণ দরজা-জানালা সামান্য খোলা থাকলেও বাইরের তাপমাত্রা ভেতরে ঢোকে এবং রুমটি ঠান্ডা হতে বেশী সময় নেয় ও বিদ্যুৎ বেশি খরচা হয়।

Air conditioning

2• AC সঠিক তাপমাত্রা তে সেট করুন।

গবেষণায় দেখা গেছে AC তে প্রতি ডিগ্রি তাপমাত্রা কমানোর ফলে বিদ্যুৎ খরচের হার 6 শতাংশ পর্যন্ত বেড়ে যায়। অর্থাৎ AC এর তাপমাত্রা যত কমাবেন কম্প্রেসার কত বাড়বে এবং বিদ্যুত খরচও সাথে সাথে বাড়তে থাকবে। তাই রাত্রে শোয়ার সময় AC সঠিক তাপমাত্রাতে সেট করুন।

Ac

3• তাপমাত্রা 18°C এর জায়গায় 26°C রাখুন।

যদি বাইরের তাপমাত্রা 35°C থেকে 38°C এর মাঝে থাকে সেক্ষেত্রে রুমের ভেতরে AC এর তাপমাত্রা 26°C তে সেট করুন। কারণ 25-26°C তাপমাত্রা মানুষের শরীরের জন্য আরামদায়ক। এবং এই তাপমাত্রা বিদ্যুৎ এর জন্য সাশ্রয়ী।

Ac

4• সঠিক সময়ে AC বন্ধ করুন।

আমরা প্রায়ই রাত্রে বেলায় AC চালিয়ে ঘুমিয়ে পড়ি এবং তা সকাল পর্যন্ত চলতে থাকে। অনেক ক্ষেত্রেই সকালের আবহাওয়া ঠান্ডা থাকে এবং সেই আবহাওয়াতে AC চালানোর কোনো প্রয়োজন পড়ে না। কথা সেই সময় AC বিনা কারণে চলতে থাকে এবং বিদ্যুৎ খরচ করে। তাই ভোর হওয়ার আগেই AC বন্ধ করে দিন।

Ac

5• অন্যান্য ইলেকট্রিক যন্ত্রপাতি বন্ধ করুন।

রাত্রে বেলায় যখন AC চালাবেন তখন অন্যান্য হাইভোল্টেজ সম্পন্ন ইলেকট্রিক যন্ত্রপাতি যেমন ফ্রিজ, হোম থিয়েটার ইত্যাদি গুলি বন্ধ রাখুন। কারণ এইসব চলার ফলে ঘরের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পায়। এছাড়া বিদ্যুৎ ও বেশি হয়।

Ac

6• নিয়মিত সার্ভিসিং।

AC কে নিয়মিত সার্ভিসিং করলে তার এফিশিয়েন্সি বাড়ে এবং এর ফলে বিদ্যুৎ খরচ খুব কম হয়। তাই একটি নির্দিষ্ট সময় অন্তর অন্তর AC কে সার্ভিসিং করুন।