Skip to content

6 কোটির বাংলো, 5 কোটির গাড়ি, যশের মোট সম্পত্তির পরিমাণ দেখলে লজ্জা পাবে ধনকুবেরাও

দক্ষিণের সুপারস্টার যশের(Yash) আসন্ন ছবি ‘KGF Chapter 2’-এর জন্য ভক্তরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন। যশ আগে শুধু ‘কন্নড় সিনেমা’তেই সীমাবদ্ধ ছিলেন। কিন্তু 2018 সালে, ‘KGF Chapter 1’ বক্স-অফিসে প্রচুর উপার্জন করে তাকে সুপার স্টার বানিয়েছে। আজ তিনি দক্ষিণ ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে ‘রকস্টার যশ’ নামে বিখ্যাত। যশ তার 14 বছরের ক্যারিয়ারে এ পর্যন্ত 20টি চলচ্চিত্র করেছেন, যার মধ্যে 11টি ছবি হিট, সুপারহিট এবং ব্লকবাস্টার হয়েছে। যশের মাত্র 3 টি ছবি ফ্লপ হয়েছে।

Yash

• বাস্তব জীবনে যশ কে?

সুপারস্টার যশের জন্ম 8 জানুয়ারী, 1986-এ কর্ণাটকের বুভানাহাল্লি গ্রামে। তার আসল নাম নবীন কুমার গৌড়া। যশের বাবার নাম অরুণ কুমার যিনি ‘কর্নাটক স্টেট রোড ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশন’-এর বাস চালক। যশের শৈশব কেটেছে মহীশূরে, যেখানে তিনি ‘মহাজন এডুকেশন সোসাইটি’-তে তার প্রি ইউনিভার্সিটি কোর্স (PUC) করেছিলেন। পড়াশোনা শেষ করে তিনি বিখ্যাত নাট্যকার বি.ভি. কারান্থের ‘বেনাকা নাটক মণ্ডলী’-তে যোগ দেন।

Yash

• অভিনয় জীবন শুরু।

কেজিএফ তারকা যশ তার অভিনয় জীবন শুরু করেছিলেন 2004 সালে কন্নড় টিভি সিরিয়াল ‘নন্দা গোকুল’ দিয়ে। এছাড়াও তিনি ‘উত্তরায়ণ’, ‘সিল্লি লালি’, ‘শিবা’ এবং ‘প্রীতি ইল্লাদা মেলা’ সিরিয়ালেও কাজ করেছেন। যশ 2007 সালে কন্নড় ছবি ‘জাম্বাদা হুডুগি’ দিয়ে চলচ্চিত্রে আত্মপ্রকাশ করেন। তবে এই ছবিতে দ্বিতীয় প্রধান চরিত্রে ছিলেন তিনি। এরপর 2008 সালে কন্নড় ছবি ‘মোগিনা মনসু’-এ মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেন যশ। এই ছবিটি সুপার হিট হয়েছিল। এছাড়াও তিনি ‘মোদালাশালা’, ‘কর্তকা’, ‘লাকি’, ‘ড্রামা’, ‘গুগলি’, ‘রাজা হুলি’, ‘গজকেসারি’, ‘মিস্টার অ্যান্ড মিসেস রামচারী’ এবং ‘মাস্টারপিস’-এর মতো সুপারহিট ছবিতে অভিনয় করেছেন।

Yash Radhika

• অভিনেত্রী রাধিকা পণ্ডিতের সঙ্গে লাভ ম্যারেজ।

কেজিএফ তারকা যশ 2016 সালে অভিনেত্রী রাধিকা পণ্ডিতের সাথে লাভ ম্যারেজ করেছিলেন। কন্নড় টিভি সিরিয়াল ‘নন্দা গোকুল’-এর সময় তাঁদের দুজনের পরিচয় হয়। প্রথমে বন্ধুত্ব, তারপর প্রেম। এর পরে, এই দম্পতি গোয়াতে গোপনে বাগদান করেন এবং পরে বেঙ্গালুরুতে বিয়ে করেন। মজার ব্যাপার হল, যশ তার বিয়ের রিসেপশনে কর্ণাটকের গোটা মানুষকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। এই তারকা দম্পতির 2 সন্তান রয়েছে।

Yash

• আজ তিনি কোটি টাকার সম্পত্তির মালিক।

সুপারস্টার যশ আজ কোটি টাকার সম্পত্তির মালিক হলেও তার বাবা অরুণ কুমার এখনও একজন বাস চালক। তিনি তার পেশা ছাড়তে চান না কারণ এই কাজের কারণে তার ছেলে আজ এত বড় অভিনেতা হয়েছে। যশ খুব সাধারণ পরিবারের অন্তর্গত, তবে তিনি তার কঠোর পরিশ্রমের ভিত্তিতে শিল্পে নাম করেছিলেন। আজ তার বাংলো, গাড়িসহ কোটি টাকার সম্পত্তি রয়েছে।

Yash

• বেঙ্গালুরুতে রয়েছে কোটি টাকার বাড়ি

কেজিএফ হিট হওয়ার পর যশ ব্যাঙ্গালোরে একটি বিলাসবহুল অ্যাপার্টমেন্ট কিনেছিলেন। এই অ্যাপার্টমেন্টটি ব্যাঙ্গালোরের পশ কলোনি প্রেস্টিজ গল্ফ অ্যাপার্টমেন্টে অবস্থিত ‘উইন্ডসর ম্যানর’-এ অবস্থিত। মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, সুপারস্টার যশের এই বিলাসবহুল অ্যাপার্টমেন্টের দাম প্রায় 6 কোটি টাকা। এই অ্যাপার্টমেন্টটি তার অনন্য ডিজাইনের কারণে বহুবার লাইমলাইটে এসেছে।

KGF তারকা যশ তার 14 বছরের চলচ্চিত্র ক্যারিয়ারে এ পর্যন্ত 20টি ছবিতে কাজ করেছেন। যশ 2018 সালে KGF-এর জন্য 6 কোটি টাকা ফি নিয়েছিলেন, কিন্তু KGF 2-এর জন্য তিনি 30 কোটি টাকার বিশাল ফি নিয়েছেন। KGF 2-এর পর যশ প্রতি ফিল্ম 20 থেকে 25 কোটি টাকা নিতে শুরু করেছেন। বর্তমানে তার মোট সম্পদের পরিমাণ 86 কোটির কাছাকাছি।

Yash

•বিজ্ঞাপন থেকে কোটি টাকা আয়

চলচ্চিত্র ছাড়াও যশ বিজ্ঞাপন থেকেও প্রচুর আয় করেন। বিজ্ঞাপনের জন্য সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক পাওয়া দক্ষিণী অভিনেতাদের একজন তিনি। তিনি বর্তমানে ‘ল্যাঙ্কোম ফেস ওয়াশ’, ‘মেনে অ্যান্ড ময় ফেস ওয়াশ’, ‘গুচি রাশ পারফিউম’, ‘মাকারি ক্লাসিক নাইট ট্রিটমেন্ট স্কিন ক্রিম’, ‘কমফি মেট বিয়ার্ড শ্যাম্পু’ এবং ‘কোকোনাট হেয়ার অয়েল’-এর মত বিজ্ঞাপনগুলিতে তিনি রয়েছেন।

Yash

• যশের কোটি টাকার বিলাসবহুল গাড়ি রয়েছে

দক্ষিণ সিনেমার ‘রকস্টার’ যশও বিলাসবহুল গাড়ির খুব পছন্দ করেন। বর্তমানে তিনি মার্সিডিজ বেঞ্জ ডিএলএস (85 লাখ টাকা), অডি কিউ 7 (80 লাখ টাকা), রেঞ্জ রোভার (80 লাখ টাকা), মার্সিডিজ বেঞ্জ জিএলসি (78 লাখ টাকা), BMW 520D (70 লাখ টাকা), রেঞ্জ রোভার ইভোক (70 লাখ টাকা)এবং পাজেরো স্পোর্ট (40 লক্ষ টাকা) এর মালিক।

যশ-রাধিকা একসাথে 2017 সালে ‘যশ মার্গ ফাউন্ডেশন’ শুরু করেছিলেন। এই সংস্থাটি অসহায় মানুষকে সাহায্য করে। কর্ণাটকের খরা-কবলিত জেলায়, যশ এই প্রতিষ্ঠানের অধীনে 4 কোটি টাকা বিনিয়োগ করে হ্রদ তৈরি করেছে যাতে লোকেরা বিশুদ্ধ পানীয় জল পায়।