রেশন কার্ড থাকলেই গ্রাহকেরা এবার থেকে পেয়ে যাবেন একাধিক সুবিধা, বিস্তারিত জানতে

Loading...

বর্তমান পরিস্থিতি বিচার করে বোঝা যাচ্ছে রেশন কার্ডের গুরুত্ব কতটা। বর্তমানে রেশন কার্ডের (Ration card) সাহায্যে আমরা ফ্রিতে রেশন পাচ্ছি। রেশন ছাড়াও রেশন কার্ড এর গুরুত্ব যথেষ্ট রয়েছে। দেশের সমস্ত নাগরিকদের জন্য একটা অত্যন্ত জরুরী ডকুমেন্ট হিসেবে কাজ করবে ভবিষ্যতে।সরকারের তরফে নভেম্বর পর্যন্ত গরিব মানুষদের বিনামূল্যে দেওয়ার ঘোষণা করা হয়েছে।এই যোজনার মাধ্যমে দেশের প্রায় 80 কোটি মানুষ বিনামূল্যে রেশন পাচ্ছেন। বর্তমান করোনা পরিস্থিতি বিচার করেই সরকারের এই রকম উদ্যোগ।

রেশন কার্ডের মাধ্যমে শুধুমাত্র বিনামূল্যে রেশন নয় এছাড়া একাধিক সুবিধা পাওয়া যায়। এটি আপনি আপনার ঠিকানা প্রমাণপত্রও পরিচয় পত্র হিসেবেও ব্যবহার করতে পারেন। আপনি ব্যাংকের কাজ, গ্যাস কানেকশন অথবা ভোটার আইডি কার্ড তৈরি ইত্যাদি ক্ষেত্রে আপনি রেশন কার্ড(Ration card) ব্যবহার করতে পারেন। বর্তমানে তিন ধরনের রেশন কার্ড রয়েছে APL, BPL, AAY ক্যাটাগরির। আপনিও অনলাইনে রেশন কার্ড আবেদন করতে পারেন।

Loading...

কিভাবে রেশন কার্ডের আবেদন করবেন নিচে বিস্তারিত জেনে নিন।

Loading...

রেশন কার্ড

Ration card

1 সর্বপ্রথম আপনাকে রাজ্যের খাদ্য বিভাগের অফিসের ওয়েবসাইট পোর্টাল খুলতে হবে।

Loading...

2 তারপর ‘apply online for ration card’ লিংক এ ক্লিক করে আবেদন করতে হবে।

Loading...

3 তারপর আপনি রেশন কার্ড(Ration card) তৈরির জন্য প্রমাণ স্বরূপ আধার কার্ড, ভোটার কার্ড ,হেলথ কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্স, পাসপোর্ট ইত্যাদি ব্যবহার করতে পারেন।

4 এটি তৈরি করার জন্য 5 টাকা থেকে 45 টাকা চার্জ নেওয়া হতে পারে।

5 আবেদনপত্রটি যথাযথভাবে পূরণ করে সাবমিট করে দিন।

6 তারপর আপনার আবেদনপত্রটির ফিল্ড ভেরিফিকেশন হবে। ভেরিফিকেশন সফল হলেই আপনার কাছে রেশন কার্ড চলে আসবে।