সোশ্যাল মিডিয়ার একাংশের আবেগকে আমি সম্মান জানাচ্ছি, তবে ভারতরত্ন’দেওয়ার দাবি বন্ধ হোক, বার্তা Ratan Tata

Loading...

শুধুমাত্র শিল্প ক্ষেত্রে নয়, নানা সমাজ হিতৈষী কাজেও টাটা কোম্পানির কর্ণধার রতন টাটা (Ratan Tata) এর জুড়ি মেলা ভার। ভারতের যেকোনো সঙ্কটজনক পরিস্থিতিতে রতন টাটা কে ভারতের পাশে দাঁড়াতে দেখতে পাওয়া যায়। এইসব নানা কারণে রতন টাটা ভারতরত্ন এর সত্যি এক যোগ্য ব্যক্তি।

Loading...

শুক্রবার রতন টাটার জন্য ভারতরত্ন এর দাবি তে টুইটারে একটি হ্যাশট্যাগ ট্রেন্ড করতে থাকে। সেটি হলো *#BharatRatnaForRatanTata*। দেশের সব মানুষ এই দাবিতে সহমত হন। কিন্তু এ প্রসঙ্গে রতন টাটা জি বলেন, যে তিনি ভারতীয় হিসেবে দেশের উন্নতি ও সমৃদ্ধির পথে একজন অংশীদার হতে পেরে অত্যন্ত গর্বিত, কিন্তু ভারতরত্ন দেওয়ার দাবি জানানো বন্ধ হোক। তিনি আরো বলেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভারতরত্নের দাবিকে সবার আবেগকে আমি যথেষ্ট সম্মান জানাই। কিন্তু তার একান্ত অনুরোধ যেন এরকম প্রচার না করা হয়।

Loading...

টাটা জি নানা সময় নানা জনসেবামূলক কাজ করে চলেছেন। এমনকি তিনি অত্যন্ত পশুপ্রেমী একজন সুহৃদয় মানুষ। তিনি অনেক রাস্তার কুকুর কে আশ্রয়দান এবং তাদের সমস্ত দায়ভার নিয়েছেন। এছাড়াও দেশের সংকটজনক করোনা পরিস্থিতিতে দেশের পাশে সবসময় দেখেছেন এবং 500 কোটি টাকা অনুদান দিয়েছেন। এছাড়াও কিছুদিন পর আরও 1 হাজার কোটি টাকা স্বয়ং রতন টাটা অনুদান হিসেবে দান করেন।

Ratan Tata

দেশের জন্য তিনি এত কিছু করে চলেছেন। অন্য কোন ব্যক্তি এইসব কাজ করলে কত প্রচার হয়ে যেত। কিন্তু রতন টাটা প্রচার এর আড়ালে থাকতে চান। তিনি অত্যন্ত সাধারণ জীবন যাপন করে চলেন। তিনি প্রকৃতই ভারতরত্নের দাবিদার হতে পারেন। কিন্তু রতন টাটার ব্যক্তিগত বক্তব্য যেন তার জন্য ‘ভারতরত্ন’ এর দাবি যেন না করা হয়। তার মতে ভারতের জন্য কাজ করতে পারার সুযোগ হয়েছে এটাই তার পক্ষে এক বিরাট বিষয়।

Loading...

Loading...