Skip to content

মাত্র 19 বছর বয়সে KGF 2 সিনেমার দুর্দান্ত এডিটিং করে তাক লাগালেন উজ্জ্বল কুলকার্নি

    দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর অবশেষে প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে কন্নড় সুপারস্টার যশের (Yash) ছবি KGF Chapter 2। এই ছবিটি নিয়ে দর্শকদের মধ্যে ব্যাপক উন্মাদনা রয়েছে। যা প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে। প্রথম দিনেই ছবিটি দারুণ রিভিউ পেয়েছে। এরপর প্রথম দিনেই দারুণ আয়ের পরিসংখ্যান উপস্থাপন করেছে ছবিটি।

    এরপর এই ছবির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট প্রতিটি ছোট-বড় বিষয়ই দর্শকদের মধ্যে আলোচনার বিষয়। এবার ছবিটি নিয়ে বেরিয়ে আসছে এক চমকপ্রদ তথ্য। বিষয়টি জানার পর সুপারস্টার যশ এবং পরিচালক প্রশান্ত নীলের ভক্তরা খুব অবাক হতে চলেছেন। আসলে, শোনা যাচ্ছে সুপারস্টার যশ এবং পরিচালক প্রশান্ত নীল কেজিএফ চ্যাপ্টার 2 ছবির এডিট এর জন্য কোনো বড়ো এডিটর নয় বরং বেছে নিয়েছেন একজন 19 বছর বয়সী একটি ছেলেকে।

    KGF CHAPTER 2 EDITOR

    19 বছর বয়সী KGF Chapter 2 এর Main Editor।

    সাম্প্রতিক তথ্য অনুযায়ী, চলচ্চিত্র পরিচালক প্রশান্ত নীল এই মেগা বাজেটের চলচ্চিত্রটির সম্পাদনার দায়িত্ব দিয়েছিলেন 19 বছর বয়সী একজন নবীন এডিটর কে। হ্যাঁ, ছবির প্রধান এডিটর এর নাম উজ্জ্বল কুলকার্নি। যার বয়স মাত্র 19 বছর। মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, উজ্জ্বল কুলকার্নি একজন সম্পাদক।

    Kgf chapter 2 editor

    যিনি মজার জন্য স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র এডিট করতেন। এর পাশাপাশি তিনি অনেক বিখ্যাত ছবির ফ্যান এডিটও করেছেন। ছবির পরিচালক প্রশান্ত নীল যখন তার কাজের কথা জানতে পারেন, তখন তিনি তাকে দেখে খুব মুগ্ধ হন। তারপরে তিনি উজ্জ্বল কুলকার্নির কাছে তার গণবিনোদনকারী এবং বিগ বাজেটের চলচ্চিত্র কেজিএফ চ্যাপ্টার 2 এর এডিট এর পুরো কাজ হস্তান্তর করেন।

    Kgf chapter 2 editor

    এরপর উজ্জ্বল কুলকার্নি ছবির ট্রেলার কেটে পরিচালক প্রশান্ত নীলকে দেখান এবং তিনি তার কাজ নিয়ে খুব খুশি হন। প্রশান্ত নীল আবার একটি বড় সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন এবং উজ্জ্বল কুলকার্নিকে সমস্ত ছবির এডিট করার দায়িত্ব দেন। উজ্জ্বল কুলকার্নি খুব অল্প বয়সে এত বড় ছবি সম্পাদনা বা এডিট করে পরিচালকের পাশাপাশি সুপারস্টার যশের মন জয় করেছিলেন।

    শুধু তাই নয়, সমালোচকরাও ছবিটির প্রযুক্তিগত দিকগুলোর প্রশংসা করছেন। ছবিটির সম্পাদনা নিয়েও চলছে তুমুল আলোচনা। স্পষ্টতই উজ্জ্বল কুলকার্নি এত কম বয়সে একটি বড় অবস্থান অর্জন করেছেন তা ধারণার বাইরে।