Skip to content

এবার দীঘায় সিঙ্গাপুরের আদলে তৈরি করা হচ্ছে ‘আন্ডার ওয়াটার পার্ক’,পর্যটকদের জন্য হতে চলেছে নতুন চমক!

    img 20221102 195055

    সম্প্রতি রাজ্য সরকারের তরফ থেকে সিঙ্গাপুর আদলের আন্ডার ওয়াটার পার্ক তৈরি হওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই উদ্দেশ্যে কাজ শুরু হয়েছে জোরকদমে। সূত্রানুযায়ী জানা গেছে, সকলের পরিকল্পনায় এই অভিনব চিন্তাভাবনাকে বাস্তবিক রূপ দেওয়া হবে বাঙালির অন্যতম পছন্দের পর্যটনকেন্দ্র দিঘায় (digha)।

    Underwater tourism

    বাঙালির এই পর্যটন কেন্দ্রকে আরও আর্কষণীয় করে তোলার উদ্দেশ্যেই রাজ্য সরকার এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ইতিমধ্যেই জমির হদিসে রাজ্য সরকার দিঘা- শঙ্করপুর উন্নয়ন পর্ষদের (ডিএসডিএ) কাছে চিঠি পাঠিয়েছে। হিডকো সংস্থার তরফ থেকে এই পরিকল্পনার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। দুর্গাপুজোর আগেই পর্যটকদের সুবিধার্থে কাঁথি থেকে দিঘা অবধি মেরিন ড্রাইভ (Marine Drive) খুলে দেওয়া হয়েছিল। জগন্নাথ ধাম তৈরির শুরু হয়েছিল। এছাড়াও শোনা গেছে, রাজ্য সরকারের অনুমোদনে দিঘাতে চিড়িয়াখানাও তৈরি হতে চলেছে।

    Marine animal skeleton

    এই সমস্ত খবর শিরোনামে আসাতে দিঘা-শঙ্করপুর উন্নয়ন পর্ষদের আধিকারিক মানসকুমার মণ্ডল (Mansakumar Mandal) জানিয়েছেন, “হিডকো সংস্থাটি (HIDCO Company) জমি খোঁজার কাজ করছে। এই সংস্থাই দিঘাতে দিঘায় আন্ডার ওয়াটার পার্ক (Under Water Park) তৈরি করতে চলেছে। তবে এখনও এই বিষয়ে অনেক পরিকল্পনা রয়েছে যা বেশ গোপনীয় রয়েছে। তাই পুরোপুরি খরচের বিষয়ে এখনও জানা যায়নি।” এছাড়াও জানা গেছে, হাউজিং ইনফ্রাস্ট্রাকচার ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশন এর মধ্যে বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সংস্থা এই প্রকল্পের নকশা তৈরির দায়িত্ব নিয়েছে।

    Underwater world

    ওল্ড দিঘায় (Old Digha) ১৯৮৯ সালে দেশের ১৬ তম মেরিন অ্যাকোয়ারিয়ামের আঞ্চলিক কার্যালয় গড়ে উঠেছিল। তবে এই প্রচেষ্টা পর্যটকদের তেমন আর্কষণ করতে পারেনি। তবে এর আশেপাশেই কোনও একটা জমিতে ‘আন্ডার ওয়াটার পার্ক’ (under water park) গড়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এছাড়াও মেরিন অ্যাকোয়ারিয়ামের (Marine Aquarium) দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিক তথা বিজ্ঞানী সুব্রহ্মন্যম বালাকৃষ্ণন (Scientist Subrahmanyam Balakrishnan) জানিয়েছেন, “একটি টানেল পার্ক তৈরি করারও প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। সরকার অনুমতি দিলেই কাজ শুরু হয়ে যাবে।”

    See also  ৪৯ বছর বয়সেও কিভাবে সেই আগের সৌন্দর্য বজায় রেখেছেন ঐশ্বর্য রায়? নিজেই করলেন গোপন রহস্যের খোলাসা