Skip to content

মা বাঙালি, বাবা জার্মান হওয়া সত্ত্বেও নিজে ব্যাবহার করেন মুসলিম পদবী, রইল কারণ

    বলিউডের মতো জগতে এতো প্রতিভাবান অভিনেতা-অভিনেত্রীদের মধ্যে সফল হতে গেলে নিজেকে অন্যতম করে তুলতে হয় প্রতিনিয়ত এবং এইভাবে নিজেকে গড়ে তোলা বেশ চ্যালেঞ্জিং ব্যাপার। ঠিকই এমন এক অন্যতম প্রতিভাময়ী অভিনেত্রী হলেন দিয়া মির্জা (Dia Mirza)।

    Dia mirza

    এই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে সবচেয়ে সুন্দরী অভিনেত্রী হলেন তিনি। তিনি ২০০০ সালে তার বুদ্ধিমত্তা ও অপরূপ সৌন্দর্যের দরুণ আন্তর্জাতিক মিস এশিয়া (International Miss Asia) টাইটেল জিতেছিলেন। তিনি তার অভিনয় ক্যারিয়ারে তার ভক্তদের অনেক ভালো ভালো সিনেমা উপহার দিয়েছিলেন। জনপ্রিয় ফিল্ম ‘রেহনা হ্যায় তেরে দিল মে’ (Rahna Hai Tere Dil Mai ) তার চরিত্র আজও দর্শকদের মন জয় করে নেয়। তার সৌন্দর্য সকলেরই দৃষ্টি আকর্ষণ করে।

    Dia mirza

    প্রত্যেকেই তার অভিনয় দক্ষতা দেখেছেন। তিনি অন্যান্য অভিনেত্রীদের মধ্যে অত্যাধিক সিনেমা না করলেও যে কয়টি সিনেমা করেছেন প্রায় সবকটি সুপারহিট ব্লকবাস্টার। তাকে নিয়ে শুধুমাত্র পেশাদারী জীবনে নয় তার ব্যাক্তিগত জীবন নিয়েও অনেক আলোচনা করা হয়।

     

    দিয়া মির্জা (Dia Mirza) তার জীবনে ছোট থেকেই অনেক সংগ্রাম দেখেছেন। মাত্র ৯ বছর বয়সে তিনি তার বাবা-মায়ের বিচ্ছেদের সম্মুখীন হন। তার বাবা ছিলেন জার্মানের ফ্রাঙ্ক হেনডিচের বাসিন্দা এবং মা ছিলেন বাঙালি। বিচ্ছেদের পর তার মা আজিজ মির্জাকে বিয়ে করেন।  অভিনেত্রীর সঙ্গে তাঁর দ্বিতীয় বাবার সম্পর্ক খুবই কাছের। তিনি তার বাবাকে ভালোবাসেন। শুধু তাই নয় তিনি তার নামের পাশে তার দ্বিতীয় পিতার পদবীও ব্যবহার করেন।

    Dia Mirza

    তার ক্যারিয়ারে, ‘সালাম মুম্বাই’ (Salam Mumbai), ‘তুমকো না ভুল পায়া’ (Tumko Na Vul Paya) এই ছবিগুলো দর্শকদের মনে সারাজীবন গেঁথে থাকবে।