Skip to content

তুমুল প্রতিবাদের পর অবশেষে বদলানো হলো ‘পৃথ্বীরাজ’ সিনেমার নাম, নতুন নাম দেওয়া হলো

    দেশের মহান যোদ্ধাকে নিয়ে নির্মিত ‘পৃথ্বীরাজ’ (Prithviraj) ছবিটি একদিকে মুক্তির জন্য প্রস্তুত।  অপরদিকে তার নামের বিরুদ্ধে প্রতিনিয়ত বিরোধিতা চলছে।  তাই এখন ছবিটি সম্পর্কিত একটি বড় আপডেট বেরিয়ে এসেছে, যাতে বলা হয়েছিল যে অবশেষে নির্মাতারা ছবিটির নাম পরিবর্তন করেছেন।  হ্যাঁ, লাগাতার প্রতিবাদ ও প্রশ্ন উঠার পর নাম পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নির্মাতারা।

    Akshay Kumar

    এখন নিশ্চয়ই আপনাদের সামনে আসছে যে কিসের পরে নতুন নামকরণ করা হয়েছে এবং কারা প্রতিবাদ করছিল।  তো চলুন জেনে নেওয়া যাক কারা ছবিটির নাম পরিবর্তনের দাবি জানিয়েছিলেন। উল্লেখ্য, যশ রাজ ব্যানারের এই ছবি মুক্তি পেতে চলেছে ৩ জুন।  এমন পরিস্থিতিতে এবার নাম পরিবর্তন করা হল মুক্তির কয়েকদিন আগে।  স্পষ্টতই, ছবিতে অক্ষয় কুমার, সোনু সুদ, মানুশি এবং সঞ্জু বাবার মতো অনেক অভিজ্ঞ অভিনেতা রয়েছেন।

    ছবিটির ট্রেলার প্রকাশের পর থেকেই এটি অনেকটাই খবরে রয়েছে।  তবে ছবিটিতে অক্ষয় অভিনীত সম্রাট চরিত্রটি মানুষের কাছে জমেনি।

    Akshay Kumar

    ছবিটির ট্রেলার প্রকাশের পর থেকেই এটি অনেকটাই খবরে রয়েছে।  তবে ছবিটিতে অক্ষয় অভিনীত সম্রাট চরিত্রটি মানুষের কাছে জমেনি। যার কারণে বেশ সমালোচিতও হয়েছেন তিনি।  তবে ট্রেলার দেখার পর এটা নিশ্চিত যে বড় পর্দায় এর জোর থাকবে।

    এদিকে এবার চলচ্চিত্রের নাম পরিবর্তনের খবর সামনে এসেছে।  আপনাদের জানিয়ে রাখি যে ছবিটির নাম নিয়ে যারা প্রতিবাদ করছিলেন তারা আর কেউ নন, ‘কর্ণি সেনা’।  সম্প্রতি যশরাজের কাছে নাম পরিবর্তনের দাবি জানিয়ে চিঠি পাঠিয়েছিলেন তিনি।

    Prithviraj

    তাই এখন নির্মাতাদের তরফে রাজপুত করনি সেনাকে চিঠি পাঠিয়ে নাম পরিবর্তনের কথা জানানো হয়েছে।  চিঠিতে লেখা আছে- “আমরা, যশ রাজ ফিল্মস প্রাইভেট লিমিটেড, ১৯৭০-এর দশকে আমাদের সূচনা থেকেই একটি শীর্ষস্থানীয় প্রোডাকশন হাউস এবং ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি। ভারতের বৃহত্তম ফিল্ম স্টুডিওগুলির মধ্যে একটিতে বিকাশ করা।  আমরা ভারতীয় সিনেমার ইতিহাসে সবচেয়ে আইকনিক কিছু চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছি এবং ৫০ বছরেরও বেশি সময় ধরে বিনোদন শিল্পে আমাদের সদিচ্ছা রয়েছে।”

    শুধু তাই নয়, চিঠিতে আরও লেখা ছিল- “চলচ্চিত্রের বর্তমান শিরোনাম সম্পর্কে আপনার অভিযোগ সম্পর্কে আমাদের সতর্ক করার জন্য আপনার প্রচেষ্টাকে আমরা আন্তরিকভাবে প্রশংসা করি। আপনাকে আশ্বস্ত করছি যে আমরা কোন ব্যক্তি(দের) অনুভূতিতে আঘাত করার ইচ্ছা করি না এবং অভিপ্রায় করি না।  “প্রকৃতপক্ষে, আমরা এই চলচ্চিত্রের মাধ্যমে আমাদের দেশের ইতিহাসে তার সাহসিকতা, অর্জন এবং অবদান উদযাপন করতে চাই।”

    “আমাদের মধ্যে বহু দফা আলোচনার ভিত্তিতে এবং শান্তিপূর্ণভাবে এবং সৌহার্দ্যপূর্ণভাবে উত্থাপিত অভিযোগের সমাধান করার জন্য, আমরা ছবিটির শিরোনাম পরিবর্তন করে ‘সম্রাট পৃথ্বীরাজ’ করব।”  এমতাবস্থায় যে নতুন পোস্টার আসবে এবং ছবিটি নতুন নামে সিনেমা হাউসে যাবে।  এখন এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লোকজনের প্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে।

    See also  নুসরাতের থেকেও বহুগুণ সুন্দরী তার বোন নুজহাত, সৌন্দর্যের দিক থেকে টেক্কা দেবে বলিউড অভিনেত্রীদের