Skip to content

বাংলাদেশের পদ্মা সেতুকেও টপকে দেবে পশ্চিমবঙ্গের এই বিশাল সেতু! শীঘ্রই শুরু হচ্ছে নির্মাণ কাজ

    img 20220906 181454

    গোটা দেশজুড়ে জনমানুষের সুবিধার জন্য শুরু হয়েছে বহু নতুন নতুন প্রকল্প। সম্প্রতি শুরু হতে চলেছে একটি নতুন প্রকল্প। ইতিমধ্যেই বারানসী থেকে কলকাতার আসার হাইওয়ে তৈরীর কাজ শুরু হয়ে গেছে। খবর সূত্রে জানা গেছে, পশ্চিমবঙ্গে নতুন একটি সেতু (Bridge) এবং দুটি বড় মাপের হাইওয়ে তৈরি হতে চলেছে বারানসি-কলকাতা হাইওয়ে (Varanasi to Kolkata expressway) প্রকল্পের আওতায়। প্রসঙ্গত জানা গেছে, ৮০-৯০ মিটার চওড়া চার লেনের জাতীয় সড়ক তৈরী করা হবে। এর পাশাপাশি বাংলা পেতে চলেছে আরও একটি নতুন সেতু।

    Bridge

    সমস্ত খরচা মিলিয়ে এই প্রকল্পের জন্য কাছ থেকে কেন্দ্রের কাছে থেকে ৫০ হাজার কোটি টাকার সুবিধা পাবে বাংলা।  তবে রাজ্যের কাছে এখন সব থেকে বড় দুশ্চিন্তা হলো জমি জোগাড় করা। ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে জমি জোগাড় প্রক্রিয়া চলছে। খড়গপুর থেকে মোড়গ্রামের জন্য নকশা অনুযায়ী জমি জোগাড়ের প্রক্রিয়া চলছে।  জানিয়ে রাখি, এই প্রকল্পের সমস্ত দায়িত্ব যখন কেন্দ্রের তখন জমি নিয়ে কোনও সমস্যা আশা করা যায় হবে না।

    Howrah bridge

    বারানসি থেকে কলকাতা পর্যন্ত এই হাইওয়ে প্রকল্পের কাজ অনেক আগে থেকেই শুরু হয়ে গেছে। সেই সূত্রে বলে যে বাগনান ৬ নং জাতীয় সড়কের সঙ্গে এই হাইওয়ে মেশার কথা রয়েছে। রাজ্য সরকার চেয়েছিলেন যে ওই জাতীয় সড়ক যদি বোম্বে রোডে মেশে তবে কলকাতামুখী যাত্রীদের যান চলাচলে অনেক সুবিধা হবে। রাজ্য সরকার এই যুক্তিতেই হুগলি নদীর উপর আরও একটি সেতু নির্মাণের (Second Hoogly Bridge) প্রস্তাব দিয়েছিলেন। কেন্দ্র সরকার এই জাতীয় সড়ক এবং সেতু তৈরির প্রকল্পে কোনও বাধা দেয়নি।

    See also  এই হ্রদে পড়ে গেলেও ডুবে যাবেন না আপনি! ভারতেই রয়েছে এমন একটি রহস্যময় হ্রদ

    Hooghly bridge

    পরিকল্পনা অনুযায়ী জাতীয় সড়কের যে নকশা তৈরি করা হয়েছে তাতে দেখা যায় ৬২০ কিলোমিটার দীর্ঘ বারানসি-কলকাতা হাইওয়ে পুরুলিয়া হয়ে কলকাতায় আসবে। কলকাতা ঢুকবে পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, পশ্চিম মেদিনীপুরের ঘাটাল, গড়বেতা হয়ে বাগনানের বোম্বে রোড পেরিয়ে। বাটানগর-বজবজ বা বন্দরের কাছাকাছি সুবিধাজনক জায়গায় এই হাইওয়েটিকে কলকাতার সঙ্গে যুক্ত করে সেতু তৈরি করার প্রস্তাব দিয়েছে রাজ্য সরকার।

    Rabindra Setu

    প্রশাসনের তরফ থেকে এক শীর্ষকর্তা জানিয়েছেন, কেন্দ্র থেকে তখনই ছাড়পত্র দেওয়া হবে যখন রাজ্য সরকার সবিস্তার প্রকল্প তৈরী করতে সক্ষম হবে। ২৮০-৯০ কিলোমিটার রাজ্যে নতুন জাতীয় সড়ক তৈরির পরিকল্পনা শুরু হয়েছে। যার খরচ মূল্য হতে পারে ১৬ হাজার কোটি টাকা। আর সেই সূত্রে হুগলি নদীর উপর তৃতীয় সেতু তৈরি হবে। সমস্ত মিলিয়ে কেন্দ্রের মোট খরচ হতে চলেছে ৫০ হাজার কোটি টাকা। এই প্রকল্প যদি তৈরি হয় তবে কলকাতা থেকে বোম্বে যাওয়া এবং বারাণসী থেকে কলকাতা আসার রাস্তা খুবই সহজ হবে।