৭ কোটি বছরের পুরানো ডিমে পাওয়া গেল ডাইনোসরের বাচ্চা, বৈজ্ঞানিক মহলে হৈচৈ রব

ডাইনোসর বলতে জনপ্রিয় ধারণায় একটি অধুনা অবলুপ্ত, সাধারণত বৃহদাকার মেরুদণ্ডী প্রাণীগোষ্ঠীকে বোঝায়। এরা পৃথিবীর বাস্তুতন্ত্রের প্রাগৈতিহাসিক অধিবাসী এবং বৈজ্ঞানিকদের অনুমান এই প্রভাবশালী প্রাণীরা প্রায় ১৬ কোটি বছর ধরে পৃথিবীতে রাজত্ব করেছে। প্রথম ডাইনোসরের বিবর্তন হয়েছিল আনুমানিক ২৩ কোটি বছর পূর্বে। ক্রিটেশিয়াস যুগের শেষে প্রায় সাড়ে ৬ কোটি বছর পূর্বে একটি বিধ্বংসী প্রাকৃতিক বিপর্যয় ডাইনোসরদের প্রভাবকে পৃথিবী থেকে সম্পূর্ণ বিলুপ্ত করে দেয়।

Dinosaur egg

সম্প্রতি চীনের জিয়াংসু প্রদেশের বিজ্ঞানীরা খুঁজে পেল ডাইনোসরের ভ্রুন। এর সাথে বিজ্ঞানীরা এও বলেন ডাইনোসরের সম্পূর্ণ ভ্রূণ এর দৈর্ঘ্য হচ্ছে 10.6 ইঞ্চি। এই ভ্রূণ 66 থেকে 72 মিলিয়ন বছর পুরনো বলে মনে করেছেন বিজ্ঞানীরা ‌এই সম্পর্কে বার্মিংহাম বিশ্ববিদ্যালয় জীবাশ্মবিদরা বলেন যে ওভিরাপ্টোরোসর প্রজাতির অন্তর্গত। এই ডাইনোসরকে থেরোপড ডাইনোসর বলা হয়।

 

এ ডাইনোসরের দেহের আকৃতি বৈচিত্র্যময় এবং এদের কোন প্রকার দাঁত নেয়। রিপোর্ট অনুযায়ী এই জীবাশ্ম থেকে বোঝা যায় কয়েক দিনের মধ্যে ডিম ফুটে বেরিয়ে আসতে চলেছে এর মাথা ও শরীরের অংশ নিচের দিকে। ওভিরাপ্টোরোসর ছিল এশিয়া এবং উত্তর আমেরিকার পালকযুক্ত ডাইনোসর। ক্যালগারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ডার্লা জেলেনিটস্কি বলেন ডিমের মধ্যে পাওয়া গেছে ডাইনোসরের ।

Dinosaur fossil

এই ডাইনোসরের হাড়গুলি ছোট এবং খুব নরম। তাই তিনি বলেন আমরা গর্বিত যে আমাদের কাছে এটি আছে যে শিশু ডাইনোসরের জীবাশ্ম পাওয়া গেছে এইভাবে জিবা সংরক্ষণ করা সম্ভব বলে মনে করা হয়েছে। প্রফেসর জেলেনিটস্কি বলেন ডাইনোসরের ডিমের ভেতর কি ঘটেছিল সে সর্ম্পকে জানা আমাদের সীমিত।

প্রোফেসার এ নিয়ে বিভিন্ন মত প্রকাশ করেন ডাইনোসর জন্মাবার ঠিক আগের মুহূর্তে ডিমের ভেতর ডাইনোসরের হাড়গুলি খুব নরম প্রকৃতির হবে। সি এন এন রিপোর্ট অনুযায়ী ডাইনোসরের ডিম প্রায় 17 সেমি লম্বা এবং বাচ্চার মাথা থেকে লেজ পর্যন্ত 27সেমি হবে । গবেষকরা বিশ্বাস করেন যে এটি যদি প্রাপ্তবয়স্ক হিসাবে বেঁচে থাকত দৈর্ঘ্যে প্রায় দুই থেকে তিন মিটার দীর্ঘ হতে পারত।